১৭৮ বছর বয়সে প্রয়াত আন্তর্জাতিক ব্রিটিশ ভ্রমণ সংস্থা থমাস কুক

0
1079
thomas kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: থমাস কুক আর আমাদের মধ্যে নেই৷ মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ১৭৮৷ প্রয়ানের কারণ ব্রেক্সিটে বৃটেনের অনিশ্চয়তা বলে মনে করা হচ্ছে৷ মৃত্যুকালে তিনি রেখে গেলেন ৬ লক্ষর বেশি ভ্রমণ পিপাসু ও ২১ হাজারের বেশি কর্মচারীদের৷ মরণের সময় তার দেনা ছিল ১.২৫ বিলিয়ন পাউন্ড৷ ১০ লক্ষ পর্যটকের আগাম সংরক্ষন বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন থমাস কুকের পক্ষ থেকে এই ঘটনাকে প্রবল দুর্ভাগ্যজনক বলে বর্ণনা করেছেন৷ লিস্টারশায়ারের এক ব্রিটিশ পর্যটকের অভিযোগ তাঁকে হোটেলে কাযর্ত গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে৷ এমনকী থমাস কুকের বিমানগুলোর সব পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷

রবিবার চিরকালের মতো ঝাঁপ বন্ধ করে দিল বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন ভ্রমণ সংস্থা থমাস কুক৷ এই মুহূর্তে দেড় লাখ ব্রিটিশ নাগরিক এই ভ্রমণ সংস্থার মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের সফরে আছেন৷ থমাস কুকু বন্ধ হওয়ায় তাঁরা বেশ বিপাকে পড়েছেন৷ সোমবার বেলা থেকে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে আটকে তাকা ব্রিটিশ পর্যটকদের উদ্ধারের আকজ শুরু করবে ব্রিটিশ প্রশাসন৷ ইংল্যান্ডের বিমান পরিবহন দফতর জানিয়েছে, শুধু মালয়েশিয়ায় ১২টি চার্টার প্লেন পাঠাচ্ছে বরিস জনসন প্রশাসন৷ যে সব ব্রিটিশ পর্যটকরা থমাস কুকের মাধ্যমে বেড়াতে গিয়েছেন তাঁদের দেশে ফিরতে বিমানে কোনও খরচ লাগবে না বলে জানিয়েছে সে দেশের প্রশাসন৷ বিশ্বের ৬ লক্ষ  পর্যটন সংস্থার সব সংরক্ষণ বাতিল করেছে থমাস কুক৷

১৮৪১ সালে থমাস কুকু ইংল্যান্ডে রেল ভ্রমণ দিয়ে তাঁর ভ্রমম সংস্থা চালু করেছিলেন৷ তাঁর নামেই এই সংস্থার নাম করণ করা হয়৷ আজ বিশ্বের ১৬টি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই ভ্রমণ সংস্থার দফতর আছে৷ এই সংস্থা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরে বিশ্বে ২১ হাজার কর্মচারীর চাকরি গলে৷ এরমধ্যে আছে ৯ হাজার ব্রিটিশ৷ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন জানান, বৃটেনের ইতিহাসে এত বড় গটনা খুব কমই ঘটেছে৷ দেড় লাখ ব্রিটিশ পর্যটককে উদ্ধার করে দেশে নিয়ে আসা সরকারের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ বলে স্বীকার করেন তিনি৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here