kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বারুইপুর : মুখ্যমন্ত্রী বারে বারে রাজ্যে গাছ লাগিয়ে সবুজায়নের পরামর্শ দেন৷ অথচ এবার তার দলের প্রার্থীর সভায় হেলিপ্যাড-এর জায়গা ঠিক করতে কাটা হল ত্রিশ বছরের পুরোনো অশ্বত্থ গাছ৷ স্বাভাবিকভাবেই এমন ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিন্দায় সরব হয়েছে সিপিআইএম৷ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়-এর সভার জন্য কাটা হল ত্রিশ বছরের প্রাচীন অশ্বথ গাছ। সিভিজিলে অভিযোগ দায়ের করল সিপিআইএম। উল্লেখ্য, ভাঙড়ের বিজয়গঞ্জ বাজারে আগামী ৩ মে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর হয়ে নির্বাচনী প্রচারে আসছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

যেখানে দলের যুবরাজের জন্য হেলিপ্যাড-এর জায়গা ঠিক করতে রীতিমত নাজেহাল হতে হয়েছে দলীয় কর্মকর্তাদের। শেষবেশ ভাঙড়ের বিজয়গঞ্জ বাজারে মোটামুটিভাবে ঠিক হয় অভিষেকের সভার। সেই সভা মাঠের পূর্বদিকেই ঠিক হয় হেলিপ্যাড নামানোর। কিন্তু সেক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়ায় দীর্ঘদিনের অশ্বথ গাছ। সেক্ষেত্রে গাছটি কেটে হেলিকপ্টার নামানোর সিন্ধান্ত নেয় জেলা নেতৃত্ব। যা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের বামফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য বিষয়টি নিয়ে তীব্র বিদ্রুপ করেছেন। পাশাপাশি কমিশনে লিখিত অভিযোগ জানাবেন বলেও জানান। অপরদিকে জেলা যুব সভাপতি সওকাত মোল্লা বলেন, এখনও ঠিক হয়নি হেলিপ্যাড ওই মাঠেই নামবে কিনা। পর্যবেক্ষক দল এসে ঠিক করবেন কোথায় নামানো হবে হেলিপ্যাড। আমরা দুটি মাঠ ঠিক করেছি হেলিপ্যাডের জন্য। বিজয়গঞ্জ বাজারে একটি গাছ ছিলো, সেটি মারা গিয়েছে। সিপিআইএমের অভিযোগের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সিপিএম যা বলছে তা ওদের মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে বলে বলছে। ওদের ডাক্তার দেখানো দরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here