kolkata news
Highlights

  • পঞ্চায়েত নির্বাচনের মতো আসন্ন পুরসভা নির্বাচনেও তৃণমূল ও পুলিশ মিলে ভোট লুট করবে
  • শুক্রবার উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে দলের কর্মী প্রশিক্ষণ শিবিরে এমনই আশঙ্কাপ্রকাশ করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়
  • তিনি বলেন, গত পঞ্চায়েত নির্বাচন কীভাবে হয়েছে তা সকলেই জানেন। অতীতের মতো তৃণমূল কর্মীরা এবারও ভোট লুট করবে


নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত:
পঞ্চায়েত নির্বাচনের মতো আসন্ন পুরসভা নির্বাচনেও তৃণমূল ও পুলিশ মিলে ভোট লুট করবে। শুক্রবার উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে দলের কর্মী প্রশিক্ষণ শিবিরে এমনই আশঙ্কাপ্রকাশ করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। এদিন বারাসতের সুভাষ ইনস্টিটিউটে বিজেপি’র কর্মী প্রশিক্ষণ শিবির ছিল। দলের বারাসত, ব্যারাকপুর ও বসিরহাট সাংগঠনিক জেলার সব মণ্ডল সভাপতি ও জেলা কমিটির পদাধিকারীদের নিয়ে এই বৈঠক ছিল। সেখানে যোগ দেওয়ার আগে কৈলাস সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন।

পুরভোট অবাধ ও শাম্তিপূর্ণ হবে কিনা, সেই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘গত পঞ্চায়েত নির্বাচন কীভাবে হয়েছে তা সকলেই জানেন। অতীতের মতো তৃণমূল কর্মীরা এবারও ভোট লুট করবে। বুথ দখল করবে। গুন্ডামি করবে। বিজেপি কর্মীদের মারধর করবে। তৃণমূল ও পুলিশ একসঙ্গে ভোট লুট করবে। তাই, পুরভোট কতটা অবাধ ও শান্তিপূর্ণ হবে, তা নিয়ে আমাদের আশঙ্কা রয়েছে।’ এদিন ওই কর্মিসভায় ছিলেন মুকুল রায়, বাগদার বিধায়ক দুলাল বর, দেবাশিস মিত্র-সহ অন্যরা।

এদিকে, এখানে এদিন মুকুল রায়ও পুরসভা ভোট হওয়া নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেন। মুকুল রায়ের কথায়, যে সমস্ত পুরসভার ভোট হওয়ার কথা, সেগুলোর বেশিরভাগই নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল মে মাসে। আবার বেশকিছু পুরসভা ও কর্পোরেশনের ভোট বন্ধ রয়েছে ২০১৯ সাল থেকে। তাই পুরসভার ভোট আদৌ হবে কিনা, তা আমাদের জানার বাইরে। তবে যখনই পুরসভা ভোট হোক, তার জন্য বিজেপি প্রস্তুত আছে বলে জানান মুকুল রায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here