kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যে ভোট-পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। তৃণমূল অভিযোগ তুলছে বিজেপির দিকে। আবার বিজেপি অভিযোগ তুলছে তৃণমূলের দিকে। দুই দলের কাদা ছোড়াছুড়ির মধ্যে এখনও পর্যন্ত বেশ কয়েকজন রাজ্যবাসী নিহত হয়েছেন ভোট-হিংসায়। তৃণমূলের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, বিজেপি নেতারা লাগাতার উস্কানিমূলক মন্তব্য করার কারণে এই হিংসা ছড়াচ্ছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। এই দাবিতে তৃণমূল কর্মী-সর্মথকরা মানিকতলা থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান। তৃণমূলের তরফে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বলা হয়েছে, সন্ত্রাসের প্ররোচনা দেওয়ার জন্য মিঠুন চক্রবর্তী-সহ বিজেপি নেতাদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে।

​ব্রিগেড ময়দানে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিয়ে সেদিন মিঠুন চক্রবর্তী বলেছিলেন, ‘আমি জলঢোঁড়াও নই, বেলেবোড়াও নই। আমি জাত গোখরো। এক ছোবলেই ছবি’। পরে আবার শীতলকুচির ঘটনা নিয়ে বেশ কিছু মন্তব্য করেছিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। তাঁর এই বক্তব্যে উস্কানি ছড়িয়েছে দাবি করে মানিকতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল।

তবে শুধু মিঠুন চক্রবর্তী নয়, আরও যে সব বিজেপি নেতা বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন বলে তৃণমূলের দাবি, তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করা হয়েছে। শীতলকুচির ঘটনার পর দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, ‘বেশি বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় শীতলকুচি করা হবে’। বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা বলেছিলেন, ‘কমিশনের উচিত কেন্দ্রীয় বাহিনীকে শো-কজ করা। কারণ আটজনকে না মেরে কেন চারজনকে মেরেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী’? বিজেপি নেতাদের এইসব উস্কানিমূলক মন্তব্যের কারণে দিকে দিকে হিংসা ছড়াচ্ছে বলে দাবি করেছে তৃণমূল। তারই ফলশ্রুতি হিসেবে ভোট-পরবর্তী হিংসা অব্যাহত রাজ্যে। তাই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি উঠেছে তৃণমূলের তরফ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here