kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: আবার বিক্ষোভের মাঝে পড়লেন বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। শোভনের একসময়ের খাসতালুক বেহালা পূর্বের রবীন্দ্রনগর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একটি সভা ছিল। সেই সভাতে যাচ্ছিলেন শোভন ও বৈশাখী। সভাই যাওয়ার পথে পর্ণশ্রী, কালীমাতা মোড়-সহ বেশ কয়েকটি জায়গায় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা তাদের কালো পতাকা দেখান বলে অভিযোগ। এছাড়াও ওই দু’জনকে লক্ষ্য করে ‘গো ব্যাক’ ও ‘খেলা হবে’ স্লোগান দেওয়া হয়।

​আজকের এই ঘটনার আগে শোভন-বৈশাখীর পোস্টার ছিড়ে দেওয়ার অভিযোগ তোলে বিজেপি। আর বিজেপি তৃণমূলকে দায়ী করে। তারপর থেকে ওই এলাকায় উত্তেজনা ছিল। এরপর আর যখন সভার জন্য শোভন-বৈশাখী যাচ্ছিলেন, সেই সময় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা তাদের লক্ষ্য করে কালো পতাকা দেখানোর পাশাপাশি ‘গো ব্যাক’ স্লোগান তোলেন। এই ঘটনায় রীতিমতো উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরে শোভন-বৈশাখী নিরাপত্তারক্ষীরা তাদের গাড়ি কোনওরকমে সেখান থেকে বের করে দেন। এই ঘটনায় বিজেপি’র তরফে পর্ণশ্রী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বিজেপি অভিযোগ করেছে পুরোটাই পরিকল্পিত ভাবে করেছে তৃণমূল।

​উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে মহেশতলাতে এমন বিক্ষোভের মধ্যে পড়তে হয়েছিল এই দু’জনকে। তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা তাদের ঝাঁটা-জুতো দেখানোর পাশাপাশি গো ব্যাক স্লোগান দিয়েছিলেন। সেই ঘটনায়ও বিজেপির তরফে অভিযোগ করা হয়েছিল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও তৃণমূলের তরফে দাবি করা হয়, এলাকার মানুষ স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে শোভনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়েছে। একসঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই। আজ আবার একই ঘটনার সামনে পড়ায় দৃশ্যতই অস্বস্তিতে পড়েন শোভন ও বৈশাখী। তবে তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হলে এই ঘটনায় তাদের যোগ নেই বলে দাবি করেছে রাজ্যের শাসক দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here