news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মিনিয়াপোলিস কাণ্ডে ক্রমশ উত্তাল হচ্ছে গোটা আমেরিকা। দেশের একাধিক শহর সহ বিক্ষোভের ঢেউ আছড়ে পড়েছে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতেও। বিশেষ করে হোয়াইট হাউজের সামনে চলছে উত্তাল বিক্ষোভ। এমনকি হিংসার ভয়ে হোয়াইট হাউজের তলায় বিশেষ বাঙ্কারে গিয়ে লুকোতে হয়েছিল প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

রবিবার নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, গত শুক্রবার রাতে বিক্ষোভকারীরা হোয়াইট হাউজের বাইরে লোহার ব্যারিকেড ভেঙে দিতেই বাঙ্কারে গিয়ে লুকোন ট্রাম্প। সেখানে প্রায় এক ঘণ্টা ছিলেন তিনি। যদিও ট্রাম্পের সঙ্গে স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প ও ছেলে ব্যারন ট্রাম্প ছিলেন কিনা তা জানা যায়নি।

অন্যদিকে, ওয়াশিংটনের পাশাপাশি আমেরিকার অন্যান্য শহরেও বিক্ষোভ হিংসাত্মক আকার ধারণ করে। একাধিক জায়গায় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ হয়। এর ফলে রবিবার থেকেই আমেরিকার রাজধানী সহ ৪০টি শহরে কার্ফু জারি করা হয়েছে। এছাড়া ৫০০০ ন্যাশনাল গার্ডের জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে।

কয়েকদিন আগে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গর গলায় হাঁটু চেপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। সেই ভিডিয়ো ভাইরালও হয়ে যায়। অবশেষে শুক্রবার ওই অভিযুক্ত পুলিশকর্মীকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়।

গত সোমবার এই ঘটনা ঘটে আমেরিকার মিনিয়াপোলিসে। ওই কৃষ্ণাঙ্গ মারা যাওয়ার পরপরই ঘটনায় যুক্ত চার পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়। যে পুলিশকর্মী ওই কৃষ্ণাঙ্গের গলায় হাঁটু চেপে বসেছিলেন তার নাম ডেরেক চৌভিন। ওই ঘটনার পর থেকেই মিনিয়াপোলিসে কার্যত আগুন জ্বলছে। বিক্ষোভের আগুন ছড়িয়ে গিয়েছে অন্যান্য শহরেও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here