ক্রিকেট যুদ্ধের আগে অভিনন্দনকে ‘ব্যবহার’ করে ভারতকে কটাক্ষ পাকিস্তানের, ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটিজেনরা

0
116

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিশ্বকাপের মঞ্চে এখনও পর্যন্ত ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। কিন্তু ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে চরম আত্মবিশ্বাস পেয়েছিল পাক বাহিনী। তারপর জল অনেকদূর গড়িয়েছে, এখন ইতিমধ্যেই চলছে বিশ্বকাপ। প্রত্যেকবারের মতো এইবারেও ভারতকে হারাতে বদ্ধপরিকর পাকিস্তান। ভারতের অনুকূলে যে রেকর্ড রয়েছে তা ভাঙতে মাঠেও যেমন প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা, প্রস্তুতি চলছে মাঠের বাইরেও। ভারতকে হারাতে এবার বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ‘সঙ্গ’ দিচ্ছে অভিনন্দনও!

ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে কটাক্ষ করে বিশ্বকাপের প্রেক্ষিতে ভারত-পাকিস্তান বিজ্ঞাপন তৈরি করল পাকিস্তানের একটি চ্যানেল JAZZ TV। বিজ্ঞাপনে অভিনন্দনের মতো দেখতে এক ব্যক্তিকে আহত অবস্থায় পাক সেনার হাতে বন্দি দেখানো হয়েছে। ভারতীয় পাইলটকে বন্দি অবস্থায় যেভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল, ঠিক সেইভাবেই পাকিস্তানে এই বিজ্ঞাপনে অভিনেতা অভিনন্দনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। বাস্তবের মতোই একইভাবে বিজ্ঞাপনেও পাকিস্তানের চা-এর প্রশংসা করেছেন পর্দার অভিনন্দন! কিন্তু সবশেষে যখন অভিনন্দন রুপী ওই অভিনেতা চায়ের কাপ হাতে বেড়িয়ে যাচ্ছেন, তখন তাঁর হাত থেকে কাপ নিয়ে বলা হয়, ‘কাপ তো দেতে জাইয়ে’।


পাকিস্তানের ভারতকে কটাক্ষ করে এই বিজ্ঞাপন সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হতেই বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। কীভাবে পাকিস্তান বিজ্ঞাপনে মশকরা করতে গিয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার বীর সেনাকে টেনে আনল সেটা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে। যদিও বিশ্বকাপ নিয়ে পাকিস্তানকে কটাক্ষ করে একাধিকবার বিভিন্ন বিজ্ঞাপন বানিয়েছে ভারত। সেখানে ভারতকে ‘বাবা’ আর প্রতিবেশী দেশকে ‘শিশু’ হিসেবে দেখানোর চেষ্টাও হয়েছে। কিন্তু সেই আপাত ‘মজাদার’ বিজ্ঞাপনের নিন্দা করেছিলেন ভারতের শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষেরাই। কিন্তু কোনও বিজ্ঞাপনে কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব বা সেনাবাহিনীর কাউকে দেখানো হয়নি।

তবে পাকিস্তানের ওই বিজ্ঞাপনে ভারতকে কটাক্ষ করার চেষ্টা করা হলেও, তাতে বায়ুসেনা কম্যান্ডারের প্রসঙ্গ টেনে আনায় একেবারেই খুশি নন ভারতীয় নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন তাঁরা।

বাইশ গজে যুদ্ধের মতো বিজ্ঞাপনের জগতেও চলুক ‘যুদ্ধ’, ক্ষতি নেই। কিন্তু সেই ‘যুদ্ধ’ হোক বুদ্ধিমত্তার, উৎকর্ষতার, অভিনবত্বের। অন্যদেশকে ‘ছোট’ করতে গিয়ে কোনও দেশের বিজ্ঞাপন প্রস্তুতকারকরা যেন অবমাননাকর কিছু তৈরি করে ফেলেন, সেটাই রইল আর্জি।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here