kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বালুরঘাট: দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমন্ডি ব্লকে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ বৃহস্পতিবার রাতে কুশমণ্ডি থানার পুলিশের তৎপরতা ছদিনের মাথায় দুজনকে গ্ৰেফতার করা হয়৷ জিতু রায় ও দিনেশ হেমব্রম নামে দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শুক্রবার ১১টা নাগাদ গঙ্গারামপুর মহকুমা আদালতে পেশ করা হয় ধৃত দুজনকে। মৃত‍্য হরিহর দাসের স্ত্রী ধরিত্রী দাস ধৃতদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন৷ এছাড়াও মৃত তৃণমূল কর্মীর পরিবারের তকফে দোষীদের শাস্তির দাবি জানানো হয়। পুলিশ জানিয়েছে, জিতু রায় খুনের কথা স্বীকার করেছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি কুশমণ্ডি থানার মালিগাও এলাকায় তৃণমূল কর্মীকে পিটিয়ে খুন করা হয়। মৃতের নাম হরিহরদাস। মৃতদেহের মাথায় বাঁশের আঘাতের চিহ্ন লক্ষ করা যায়। বাড়ি থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসীরা। স্থানীয়দের অনুমান ছিল হরিহরকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে। ২২ মার্চ দুপুরে বাড়ি থেকে বেড়িয়েছিলেন তিনি।

 

পরিবারের অভিযোগ,  তাকে অন্য কোথাও খুন করে পাঁচহাটা শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের মাঠে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। এরপর মাঠের পাশে থাকা একটি পুকুর থেকে রক্ত মাখা দেহ উদ্ধার হয়। সকালবেলা এলাকার লোকজন মাঠ দিয়ে যাওয়ার সময় ওই মৃতদেহ লক্ষ করে। খবর পেয়েই ছুটে আসে এলাকাবাসীরা। এরপর খবর দেওয়া হয় কুশমন্ডি থানায়। পুলিশকে ঘিরে উত্তেজিত জনতা এবং মৃতের পরিবার দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। এরপর পুলিশ গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলে এবং এই ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতীদের ধরা হবে বলে জানানো হয়। তাদের খোঁজ চালানো হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here