delhi corona

মহানগর ডেস্ক:   দেশে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। গত দুই দিন দেশ জুড়ে দুই লক্ষের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন অংশ থেকে রুগ্ন স্বাস্থ্য ব্যবস্থার ছবি আসতে শুরু করেছে। সেখান থেকে বাদ গেল না দিল্লিও। দিল্লির সরকারি হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে দেখা গিয়েছে, একই বেডে দুই জন অক্সিজেন মাস্ক পরে শুয়ে রয়েছেন।

দিল্লির লোক নায়কে জয়প্রকাশ নারায়ন হাসপাতালে দেখা গিয়েছে, একই বেডে দুই জন শুয়ে আছে। ওয়ার্ডের মধ্যেই পরে রয়েছে মৃতদেহ। ভারতের সব থেকে বড় কোভিড হাসপাতাল জয়প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতাল। সেখানে মোট ১,৫০০টি শয্যা রয়েছে। তারপরেও করোনা রোগীদের শয্যা দিতে পারছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শয্যার অভাবে বৃহস্পতিবার বেশ কিছু করোনা রোগীকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।  প্রতিনিয়ত জয় প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতালে করোনা রোগী আসছে। কখনও করোনা রোগী অটোতে আসছে তো কখনও করোনা রোগীরা বাসের মতো গণপরিবহণ ব্যবহার করছে। হাসপাতালের সব থেকে ছোট করোনা আক্রান্ত সদ্যোদাত শিশু।

হাসপাতালের মেডিক্যাল ডিরেক্টর সুরেশ কুমার জানিয়েছেন, আমরা এখন আমাদের সমস্ত শক্তি দিয়েই করোনা রোগীদের চিকিৎসা করছি। প্রথম দিকে করোনার জন্য ৫৪টি শয্যা ছিল। এখন শুধু গুরুতর রোগীদের জন্য ৩০০টি শয্যা রয়েছে। তারপরেও কম পড়ে যাচ্ছে শয্যা। রোগীদের ফেরত পাঠানো হচ্ছে। সুরেশ কুমার মনে করছেন, করোনা সংক্রমণ এভাবে বেড়ে যাওয়ার কারণ মানুষের সচেতনার অভাব। দিনে দেড় লক্ষের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তারপরেও বেশিরভাগের মুখে মাস্ক দেখা যাচ্ছে না।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here