ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে গোটা জাতীয় রাজনীতি। রাজনৈতিক দলগুলির প্রচারপর্বের প্রস্তুতি তুঙ্গে রয়েছে। সভা সমাবেশ করে দেশের সাধারণ জনতার মন জয় করতে উদ্যোগী হয়েছে শাসক দল থেকে শুরু করে সকল বিরোধী দলগুলি। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সকলেই ভোট দেওয়ার জন্য মুখিয়ে রয়েছে নিজেদের পছন্দসই নেতা নেত্রীদের। লোকসভা নির্বাচনে পুরুষদের তুলনায় মহিলা ভোটারদের সংখ্যা সবথেকে বেশি হবে বলে আশা প্রকাশ করেছিল জাতীয় নির্বাচন কমিশন। কিন্তু এখন জানা যাচ্ছে যে, প্রায় ২ কোটি মহিলা ভোটার ভোট দিতে পারবেন না।

সম্প্রতি এমনই চাঞ্চল্যকর সমীক্ষা সকলের সামনে উঠে এসেছে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১১ সালের জনগণনা বলছে যে ১৮ বছর বয়সী প্রায় ৪৫.১ কোটি মহিলা এদেশে বসবাস করেন। কিন্তু ভোটার তালিকায় নাম রয়েছে ৪৩ কোটির। অর্থাৎ প্রায় ২.১ কোটি মহিলার নাম বাদ পড়েছে ভোটার তালিকা থেকে। যা কিনা অত্যন্ত চিন্তার বিষয়। এর মানে এও দাঁড়াচ্ছে যে, প্রত্যেকটি লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রায় ৩০ হাজার মহিলাদের নাম বাদ রয়েছে।

 

অন্যদিকে, কেন্দ্রে কোন সরকার থাকবে না থাকবে যার অনেকটাই নির্ভর করে উত্তরপ্রদেশের ওপর। কারণ একটি বড় অংশের ভোট এই রাজ্য থেকেই আসে। এখানে মোট ৮০টি লোকসভা কেন্দ্র আছে। যার ওপর সকল রাজনৈতিক দলেরই বাজপাখির নজর রয়েছে। আর এখানেই কিনা মহিলা ভোটারদের সংখ্যা কম। জানা গিয়েছে, প্রায় ৮৫ হাজার মহিলা ভোটারদের নাম বাদ পড়েছে। অবশ্য এই বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে গিয়েছে। অনেকেই এই মহিলা ভোটারদের সংখ্যা নিয়ে সন্দেহপ্রকাশ করেছেন। বিরোধী দল হোক বা শাসক দল সকলেই একে অপরের বিরুদ্ধে আক্রমণ দাগার চেষ্টা করছে এবং বলছে যে কোনও বড়সড় চক্রান্ত করা চেষ্টা চরিত্র চালানো হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here