kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, উত্তর ২৪ পরগনা: হাতেগোনা আর কিছুদিন বাদেই দুর্গা পূজো তার আগেই ফের মৃত্যু হল ডেঙ্গুতে। ১ দিনে একই জেলায় দুজনের মৃত্যুতে আতঙ্ক জেলা জুড়ে। এ যেন কিছুতেই হাবড়ার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছেনা। ডেঙ্গুতে একের পর এক প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে। ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। হাসপাতাল গুলোতে উপচে পড়া ভিড়।

এদিন অশোকনগর এলাকায় এক গৃহবধূর মৃত্যুতে শোকাহত পরিবার। মৃত গৃহবধূর নাম পূর্নিমা হালদার (৩৫)। বাড়ি অশোকনগর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের নিচু কয়াডাঙ্গা এলাকায়। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে গত বুধবার থেকে পূর্নিমা দেবীর জ্বর আসে। শুক্রবার অশোকনগর হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই রক্ত পরীক্ষায় ডেঙ্গুর জীবাণু মেলে। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে রবিবার আর জি কর হাসপাতালে রেফার করে দেওয়া হয় তাঁকে। দুদিন চিকিৎসার পর বুধবার সকাল পাঁচটা নাগাদ মারা যান তিনি। ঘটনায় পরিবার তথা এলাকায় শোকের ছায়া এলাকায়। প্রসঙ্গত অশোকনগর পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ডে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে তিন জনের মৃত্যু হল।

kolkata bengali news

অন্যদিকে, হাবড়া পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের আক্রমপুর এলাকায় ডেঙ্গুতে মৃত্যু হয় প্রতীক বিশ্বাস (২১)। পরিবার সূত্রে জানানো হয়েছে, তিনদিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন গত শনিবার হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেদিন রাতে কলকাতার আইডি হাসপাতালে রেফার করে দেওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে নীলরতন হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মৃত্যু হয় তার। মৃত্যু শংসাপত্রে ডেঙ্গুর উল্লেখ রয়েছে। এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে সাধারণ মানুষ। এক মাসে আগে মশা মারার ধোঁয়া এবং ব্লিচিং দিতে দেখলেও এখন আর কিছুই দিতে দেখা যায়না। একের পর এক মৃত্যুতে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছে সাধারণ মানুষ। এক কথায় মশা রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে হাবড়া অশোকনগর বাসীর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here