নিজস্ব প্রতিবেদক, রায়গঞ্জ: দুই পরিবারের মধ্যে প্রথমে বচসা, পরে হাতাহাতির ঘটনায় উত্তাল হল রায়গঞ্জ। ধারালো অস্ত্র নিয়ে দুই পরিবারের সদস্যরা রাস্তায় হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ল। রাস্তায় নেমে একে অন্যের দিকে অস্ত্র নিয়ে হামলার ঘটনার ভিডিয়ো ভাইরাল হল সোশ্যাল মিডিয়াতে। ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ থানার দেবীনগর এলাকার রামকৃষ্ণপল্লি এলাকায়। আহত হয়ে রায়গঞ্জ গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এক মহিলা। ওই মহিলার নাম মৌমিতা দেব। বর্তমানে তিনি রায়গঞ্জ সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দুই পরিবারই একে অপরের বিরুদ্ধে রায়গঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

উল্লেখ্য, রায়গঞ্জ থানার দেবীনগর এলাকার বাসিন্দা বিজয়া সাহার পরিবারের সঙ্গে মিলন দেবের পরিবারের দীর্ঘদিন দিন ধরে গণ্ডগোল চলছিল। গতকাল বিজয়াদেবীর পরিবারের সদস্যরা মিলন দেবের বাড়িতে গেলে মিলন দেব ও তার স্ত্রী মৌমিতা দেব ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর আক্রমণ করে বলে অভিযোগ। রীতিমতো রাস্তায় বেরিয়ে এসে চলে তাণ্ডব। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে এসে মৌমিতা দেব ও তার স্বামী মিলন দেবকে আটকায়। এই ঘটনার ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে যায় গোটা শহরে। যদিও কোনও হামলার ঘটনার কথা তারা মানতে চায়নি।

বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর অসীম অধিকারী জানিয়েছেন, আমাদের পুরসভার এক কর্মীকে মিলন দেব ও মৌমিতা দেব মারধর করে। মিলন দেব সেনা জওয়ান। দুই পরিবারের বিরুদ্ধে আগেও অনেক অভিযোগ এসেছে। আমার আগে মেটানোর চেষ্টা করেছি। প্রশাসনের উপর আমার আস্থা আছে। প্রশাসন যা করার করবে। তবে অস্ত্র নিয়ে সবার চোখের সামনে একেবারে রাস্তায় যা ঘটল, তা দেখে শিউরে উঠেছেন এলাকার লোকজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here