ডেস্ক: চাঞ্চল্যকর ঘটনা আমেদাবাদে। সবরমতী নদী থেকে উদ্ধার হল দুই মহিলার মৃত দেহ। পুলিশ সূত্রে খবর মৃত দুই মহিলা সমকামি ছিলেন। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল যে ওই দুই মহিলা মৃত্যুর আগে নদীর ধারে একটি চিঠি লিখে গিয়েছিলেন। যেটাকে ঘিরেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওই এলাকা জুড়ে। চিঠিতে লেখা আছে যে তাঁরা দুজনে সমকামী এবং একে অপরকে ভালোবাসে। দুজনে একসঙ্গে না থাকতে পারায় মৃত্যু বরণ করে নিচ্ছে। পুলিশ অনুমান করছে যে আত্মহত্যার আগেই এই চিঠিটি লিখেছেন ওই দুই মহিলা। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, ওই দুই মহিলার মধ্যে একজনের এক তিন বছরের কন্যা সন্তান ছিল এবং স্বামী আছে।

প্রথমে তাঁরা ওই কন্যা সন্তানকে নদীর জলে ছুঁড়ে দেন তারপর ওই দুই মহিলা নিজেদের উড়নার সঙ্গে বেঁধে একসঙ্গে নদীর জলে ঝাঁপ দেন বলে জানা গিয়েছে। পুলিশ ইতিমধ্যেই দেহ উদ্ধার করে চিহ্নিত করেছে বলে জানা গিয়েছে। মৃতদের পরিচয় হল দুজন মহিলা একজন আশা ঠাকুর(৩০) ও ভাবনা ঠাকুর(২৮) ও ছোট্ট শিশুটির নাম মেঘনা। সূত্র মারফত এও জানা গিয়েছে যে দুই মহিলা আমাদাবাদের রাজোদা গ্রামে এক বেসরকারি সংস্থায় কাজ করত। আশা ও ভাবনা দুজনেই পাশাপাশি গ্রামে বসবাস করত বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই পুলিশ এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে। মৃত স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here