মহানগর ওয়েবডেস্ক: চিনের সঙ্গে ভারতের সীমান্ত পরিস্থিতি বর্তমানে কিছুটা শান্ত থাকলেও ‘কাল সাপ’কে বিশ্বাস নেই কোনও ভাবেই। তাই নিজেদের প্রস্তুতিপর্ব পুরোদমে সেরে ফেলছে ভারত সরকার। কোনওরকম কঠিন পরিস্থিতি তৈরি হলে তা যাতে দ্রুততার সঙ্গে মোকাবিলা করা যায় সেই লক্ষ্যে এবার লাদাখ সীমান্তে দুটি হালকা অথচ ভয়ঙ্কর সামরিক হেলিকপ্টার মোতায়েন করল সরকার। জানা গিয়েছে অত্যাধুনিক এই দুই সামরিক হেলিকপ্টার তৈরি করেছেন হিন্দুস্থান অ্যারোনোটিক্যাল লিমিটেড (এইচএএল)। বুধবার হ্যালের তরফে এক বিজ্ঞপ্তিতে পেশ করে প্রকাশ্যে আনা হয়েছে এই তথ্য।

বুধবার হ্যাল-এর তরফে যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ্যে আনা হয়েছে সেখানে বলা হয়েছে, ‘এই হেলিকপ্টার বিশ্বের সবচেয়ে হালকা সামরিক হেলিকপ্টার। ভারতীয় সেনার প্রয়োজনের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে হেলিকপ্টারটি। এবং বিশ্বের সবচেয়ে হালকা এই হেলিকপ্টার যে আত্মনির্ভর ভারতেরই একটি অংশ সেটাও জানাতে ভোলেনি ওই সংস্থা।’ বিশেষজ্ঞদের দাবি লাদাখে চিনের লাল ফৌজকে যোগ্য জবাব দিতে রাফালের পাশাপাশি এই অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার বেশ কাজে আসবে ভারতীয় সেনার। পাশাপাশি প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আত্মনির্ভর ভারতের লক্ষ্যে এই হেলিকপ্টার যে বেশ উল্লেখযোগ্য তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি দেশের প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আত্মনির্ভরতার কথা সদর্পে ঘোষণা করেছিলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। জানিয়ে দিয়েছিলেন এখন থেকে ১০১ টি সামরিক সরঞ্জাম বিদেশ থেকে আমদানি বন্ধ করে তৈরি করা হবে দেশেই। এই লক্ষ্যে ৮ হাজার ৭৭২ কোটি টাকা ব্যয় করে অত্যাধুনিক সরঞ্জাম কিনতে চলেছে ভারত সরকার। গত মঙ্গলবার এই কেনাকাটার অনুমোদন দেয় ডিফেন্স অ্যাকুইজিশন কাউন্সিল। জানিয়ে দেওয়া হয় যা যা সরঞ্জাম এই টাকায় কেনা হবে তার সবটাই তৈরি করবে ভারতীয় সংস্থা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here