kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ দিনাজপুর: আগ্নেয়াস্ত্র বেচা-কেনার সময় দুই দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করলো দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ। সেই সঙ্গে ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে দুটি চোরাই মোটরবাইক। শনিবার ধৃতদের গঙ্গারামপুর মহকুমা আদালতে পাঠিয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ। পুলিশি সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতরা হলেন মহম্মদ আশিক, তার বাড়ি মালদা জেলার মানিকচক থানার কুমরি এলাকায়। অপরজন জয়নাল আবেদিন, তার বাড়ি গঙ্গারামপুর থানার নেহেম্বা এলাকায়। শনিবার ৭দিনের পুলিশি হেফাজতে চেয়ে ধৃতদের গঙ্গারামপুর আদালতে তোলে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, মানিকচক থানার কুমরি এলাকার বাসিন্দা মহম্মদ আশিক চোরাই বাইকে করে একটি আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আসে গঙ্গারামপুরে বিক্রি করার জন্য। সেই মতো শুক্রবার রাৎ ১১.৩০ নাগাদ গঙ্গারামপুর কিসান মান্ডি এলাকায় ঘোরাফেরা করতে থাকে আশিক। তার কিছুক্ষণের মধ্যে জয়নাল আবেদিন নাম আর এক ব্যক্তি একটি চোরাই বাইক নিয়ে হাজির হয় সেখানে।

সেই সময় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ ওই ২যুবককে ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি পাইপগান ও এক রাউন্ড কার্তুজ সহ ২টি চোরাই বাইক ও নগদ ৪হাজার টাকা। শনিবার ৭দিনের পুলিশ হেফাজতে চেয়ে ধৃতদের গঙ্গারামপুর মহকুমা তোলে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ। এই বিষয়ে গঙ্গারামপুর থানার আইসি পূর্ণেন্দু কুমার কুণ্ডু জানান, আগ্নেয়াস্ত্র বেচা-কেনার সময় দুই যুবককে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে একটি পাইপগান উদ্ধার করা হয়েছে। এই চক্রে আর কেউ জড়িত আছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here