Breaking Bad: আমেরিকান টিভি সিরিজের কায়দায় ড্রাগ তৈরি করতে গিয়ে গ্রেফতার ২ অধ্যাপক

0

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ২০০৮ থেকে ২০১৩। এই পাঁচ বছর আমেরিকায় চলেছিল একটি টিভি সিরিজ। নাম ‘ব্রেকিং ব্যাড’। পৃথিবীর টিভি সিরিজের ইতিহাসে যেটা তৈরি করেছিল এক মাইল ফলক। সমালোচকদের বিচারে সর্বোত্তম টিভি সিরিজ হিসেবে গিনেস বুকে নামও তুলেছিল সে। শেষ সিজন মুক্তি পাওয়ার পাঁচ বছর পরে আজও সকল আমেরিকান টিভি সিরিজপ্রেমীদের কাছে অন্যতম প্রিয় শো এটি।

কী ছিল সেই টিভি সিরিজের বিষয়বস্তু? না, নিউ মেক্সিকোর অ্যালবাকার্কি শহরের এক সাধারণ কেমিস্ট্রি স্কুল শিক্ষকের জীবন ঘিরে আবর্তিত হয়েছিল গোটা কাহিনী। কী ভাবে আর্থিক প্রয়োজনে সাদাসিধে শিক্ষক ওয়াল্টার হোয়াইট হয়ে উঠেছিলেন ড্রাগ মাফিয়া ‘হাইজেনবার্গ’। নিজের সমস্ত শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে গোপনে তৈরি করতেন নিষিদ্ধ ড্রাগ মেথামফেটামিন (C10H15N) বা সংক্ষেপে ‘মেথ’। অবশ্যই শেষটা খুব একটা সুখকর হয়নি ওয়াল্টার হোয়াইটের জন্য।

ঠিক যেমনভাবে সুখকর হল না টেরি ডেভিড বেটম্যান (৪৫) ও ব্র্যাডলি অ্যালেন রোল্যান্ডের (৪০) জন্য। ব্রেকিং ব্যাডের ওয়াল্টার হোয়াইটের ঢঙয়ে নিষিদ্ধ মেথামফেটামিন ড্রাগ বানাতে গিয়ে পুলিশের জালে এরা দুজন। আর মজার ব্যাপার, টেরি ও ব্র্যাডলি দুজনেই হেন্ডারসন স্টেট ইউনিভার্সিটির কেমিস্ট্রির অধ্যাপক। প্রায় দশ বছর ধরেই ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করতেন তারা।

kolkata bengali news

দুই প্রফেসরের এহেন ‘কীর্তির’ পিছনে যে ব্রেকিং ব্যাড টিভি সিরিজের ‘অনুপ্রেরণা’ রয়েছে তা বলাই বাহুল্য। তবে পর্দার ওয়াল্টার হোয়াইটের মতো ধুরন্ধর হতে পারলেন না তারা। দুজনে মিলে ‘মেথ’ ‘কুকিং’য়ের সিদ্ধান্ত নেন বিশ্ববিদ্যালয়েরই কেমিস্ট্রি ল্যাবে। ফলে যা হওয়ার তাই হল। রাসায়নিক প্রক্রিয়ার বিকট গন্ধে সন্দেহ হয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। খবর যায় পুলিশে। পরে পরীক্ষা করে ওই ল্যাবে বেঞ্জিল ক্লোরাইডের উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি পাওয়া যায়। এই বেঞ্জিন ক্লোরাইড আবার মেথামফেটামিন তৈরি করতেই কাজে লাগে। নিষিদ্ধ ‘মেথ’ তৈরি করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় টেরি ও ব্র্যাডলিকে। উল্লেখ্য, আমেরিকান আইন অনুযায়ী মেথামফেটামিন তৈরি করার চেষ্টা করলে ৪০ বছর পর্যন্ত জেল হেফাজত হতে পারে। আবার বেঞ্জিন ক্লোরাইড অবৈধ কাজে ব্যবহার করলে আরও ২০ বছর জেল হেফাজত পাক্কা। ফলে বাস্তবের ওয়াল্টার হোয়াইট আর হওয়া হল না টেরি ও ব্র্যাডলির।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here