মহানগর ওয়েবডেস্ক: মেয়ো রোডে তৃণমূল ছাত্রপরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে বিজেপিকে আক্রমণ শানাতে গিয়ে মমতা বলেন, ‘বিজেপির কাছে কখনই মাথা নত করব না। যদি জেলে যেতে হয় ভাবব আমি স্বাধীনতা সংগ্রামী। কারণ দেশের স্বাধীনতা হরণ করেছে বিজেপি।’ মমতার সেই বক্তব্যকে একহাত নিয়ে পাল্টা তাঁকে আক্রমণ শানালেন বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

বৃহস্পতিবার মমতাকে আক্রমণ করতে নিজের নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টকে হাতিয়ার করেন বাবুল। সেখানে বুধবার মমতার স্বাধীনতা সংগ্রামী মূলক বক্তব্যকে একহাত নিয়ে তাঁকে ‘দিদি’ সম্বোধনে পাল্টা আক্রমণে বাবুল বলেন, ‘দুঃখিত দিদি। স্বাধীনতা সংগ্রামী হওয়াটা অত্যন্ত সম্মান ও গর্বের বিষয়। কিন্তু আপনি এই সম্মান পাবেন না। কারণ এই সম্মান বাংলার সেই সব মানুষদের জন্য তোলা যারা সত্যিই স্বাধিনতার জন্য লড়াই করেছেন। আপনার ও ‘টিএমছি’র হাত থেকে স্বাধীনতা পেতে যারা নিজেদের জীবন বলি দিয়েছেন।’ প্রসঙ্গত, সেই পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে শুরু করে পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক হিংসার বলি হয়েছেন বহু মানুষ। লোকসভা নির্বাচনে ময়দানে পঞ্চায়েত নির্বাচনের সেই অগণতান্ত্রিকতার কথা তুলে ধরে বেশ বড় অঙ্কের জয় হাসিল করেছে বিজেপি। রাজনৈতিক মহলের অনুমান এদিন বাবুলের এই বক্তব্যে উঠে এসেছে সেই প্রসঙ্গ। স্বাধীনতা সংগ্রামী বলতে তিনি তুলে ধরতে চেয়েছেন রাজনৈতিক হিংসার জেরে রাজ্য বলি হওয়া সেই সমস্ত মানুষের কথা।

উল্লেখ্য, বুধবার মেয়ো রোডের সভা মঞ্চে দাঁড়িয়ে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে ফুটে উঠেছিল একরাশ ক্ষোভ। এই বিজেপির হাত থেকে মুক্তি পেতে তিনি বলেন, ‘বিজেপির মতো সাম্প্রদায়িক দলের কাছে কখনই মাথা নত করব না। যদি জেলে যেতে হয় তবু ভাল, ভাবব আমি স্বাধীনতা সংগ্রামী। কারণ দেশের স্বাধীনতা হরণ করেছে বিজেপি।’ তার এই বক্তব্যকে একহাত নিলেন বাবুল সুপ্রিয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here