uma

ডেস্ক: দেশের সপ্তদশতম লোকসভা নির্বাচনের আর বাকি হাতে গুণে কয়েকদিন। ভারতের নির্বাচনের প্রেক্ষিতে দেশবাসীর একটি অভিযোগ বহুদিনের। তা হল, বিধায়ক কিংবা সাংসদ হওয়ার পর নেতা নেত্রীদের সম্পত্তি কীভাবে যেন বেড়ে যায় তরতরিয়ে। না! আইনি পথে সম্পত্তির হিসাব অবশ্য একটি রয়েছে, কিন্তু তাঁকে ঠিক মানতে চান না জনগণ। তবে একদিকে যেমন সম্পত্তির বৃদ্ধি রয়েছে অন্যদিকে রয়েছে তাঁর ব্যাতিক্রম। লোকসভা নির্বাচনের মহাযজ্ঞের আগে সম্প্রতি উঠে এসেছে দেশের সাংসদদের সম্পত্তির খতিয়ানের তালিকা। যেখানে কোটি কোটি টাকার মালিক সাংসদদের তালিকায় একেবারে নিচের সারিতে দেখা গেল বাংলার এক সাংসদকে। তৃণমূলের এই সাংসদের নাম উমা সোরেন। গতবারের তৃণমূলের টিকিটে ঝাড়গ্রাম থেকে দাড়িয়েছেন তিনি। তবে সবচেয়ে গরিব সাংসদের তালিকায় তিনি রয়েছেন ২ নম্বরে। অন্যদিকে, এক নম্বরে রয়েছেন বিজেপি সাংসদ সুমেধানন্দ সরস্বতী।

বৃহস্পতিবার অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস (ADR)-এর তরফে প্রকাশিত এক তথ্যে জানা গিয়েছে, ঝাড়গ্রামের তৃণমূল সাংসদ উমা সোরেনের সম্পত্তির পরিমাণ ৪ লক্ষ ৯৯ হাজার ৬৪৬ টাকা। গরিব তালিকায় দ্বিতীয় তিনি। অন্যদিকে, এই তালিকায় যিনি প্রথম স্থান অধিকার করেছেন তিনি ৬৭ বছর বয়সী সুমেধানন্দ সরস্বতী। তাঁর সম্পত্তি মাত্র ৩৪ হাজার ৩১১ টাকা। তবে তাঁর এই সম্পত্তি প্রসঙ্গে তাঁর দাবি, আমি একজন সন্ন্যাসী, সমাজ সেবক। আমার জমি জায়গা পরিবার কিছুই নেই। ওসবের আমার প্রয়োজনও নেই। প্রয়োজন শুধু বেঁচে থাকার জন্য খাবার ও কাপড়ের। রাজস্থানের এহেন প্রার্থী পেয়ে সীকার কেন্দ্রে ফের একবার নিশ্চিত জয়ের জন্য আশাবাদী বিজেপি। অন্যদিকে, উমা সোরেনকে নিয়ে গর্বিত তৃণমূল। তবে এবার তাঁর পরিবর্তে ঝাড়গ্রাম থেকে লোকসভার টিকিট দেওয়া হয়েছে বীরবাহা সোরেনকে।

তবে গরিব প্রার্থীর পাশাপাশি, এই তালিকায় উঠে এসেছে সবচেয়ে ধনী প্রার্থী তথা সাংসদদের তালিকাও যেখানে অবশ্য একেবারে শীর্ষে রয়েছেন টিডিপির সাংসদ জয়দেব গাল্লা। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৬৮৩ কোটি টাকা। শুধু তাই নয় সমীক্ষার রিপোর্ট আরও জানাচ্ছে দেশে বর্তমানে যে ৫২১ জন সাংসদ রয়েছেন তাঁদের মধ্যে ৮৩০ জন সাংসদই কোটিপতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here