kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : বেসরকারি হাসপাতালে বাবার চিকিৎসার খরচ জোগাড় করতে না পেরে কুয়োয় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা ছেলের। অন্তত  এমনই অভিযোগ মায়ের। দুর্গাপুরের কুড়ুরিয়া ডাঙার মিলনপল্লির ঘটনায় চাঞ্চল্য। মৃতের নাম আকাশ কর। আজ, রবিবার দুপুরে বছর একুশের আকাশের দেহ উদ্ধার হয় তাঁরই বাড়ির সামনের একটি কুয়ো থেকে। দেহ উদ্ধার করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, আকাশের বাবা নিমাই করোনা সংক্রমিত হয়ে ভর্তি রয়েছেন দুর্গাপুরের শোভাপুরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে।  আকাশই পরিবারের একমাত্র সন্তান। ছোটো অটো পার্টসের দোকান রয়েছে তাঁদের। সেখানকার আয়েই সংসার চলে কোনওক্রমে। আকাশের

মায়ের অভিযোগ,  হাসপাতালের বিল তিন লক্ষ টাকার কাছাকাছি। কোনওক্রমে দেড় লাখ টাকা জোগাড় করতে পেরেছিলেন আকাশ। বাকি টাকা জোগাড় না হওয়ায় বাড়ির সামনের কুয়োয় ঝাঁপ দেন তিনি। এদিন সকাল থেকে আকাশকে খুঁজে না পেয়ে সন্দেহ হয় পড়শিদের। শুরু হয় খোঁজাখুঁজি।  তখনই দেখা যায় কুয়োয় ভাসছেন আকাশ। খবর পেয়ে দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। দুর্গাপুরের গান্ধি মোড়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here