ডেস্ক: তিন তালাক নিয়ে ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ তাৎক্ষণিক তিন তালাককে অপরাধ হিসেবে ঘোষণা করার জন্য অর্ডিন্যান্স পাশ করল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা৷ এখন শুধু বাকি রাষ্ট্রপতির সিলমোহর, তারপরেই সারা দেশে তিন তালাক শাস্তিমূলক অপরাধে পরিণত হবে৷ মুসলিম মহিলাদের সুদিন আনতে যেদিন পদক্ষেপ নিল কেন্দ্র, সেদিনই আবার বাড়িয়ে দিল রাজনৈতিক উত্তাপ৷ তিন তালাক বিল নিয়ে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ৷

কংগ্রেসকে একহাত নিয়ে কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী বলেন, শুধুমাত্র ভোটব্যাঙ্কের লোভে এতদিন ধরে তিন তালাক নিয়ে গড়িমসি করছিল কংগ্রেস৷ এই বিলের প্রাধান্য বুঝিয়ে একাধিকবার কংগ্রেসের সমর্থন চাওয়া হয়েছে, কিন্তু তারা সমর্থন করেন নি৷ বিজেপির অভিযোগ ছিল, সরাসরি বিরোধীতা না করে বিভিন্ন খুঁত বার করতে শুরু করে বিরোধীরা৷ বিল সংশোধন করে পুনরায় আনার আর্জি জানায় কংগ্রেস৷ তা পরে সম্ভব হয়নি৷ ঠিক এই কারণেই এত বড় সিদ্ধান্ত নিতে দেরি হয়েছে৷ পরোক্ষভাবে সোনিয়া গান্ধীকে আক্রমণ করেন আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ৷ তাঁর বক্তব্য, এতদিন কংগ্রেসের হয়ে সিদ্ধান্ত নিতেন এক মহিলা, তিনি কিকরে তিন তালাক নিয়ে রাজনীতি সমর্থন করেছেন এই বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি৷

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে তাৎক্ষণিক তিন তালাককে বেআইনি ও অসাংবিধানিক বলে রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট৷ তারপরেও অভিযোগ কিছু কম জমা পড়েনি৷ অন্যদিকে, গতবছর শীতকালীন অধিবেশনে লোকসভায় বিল পাশ করানো গেলেও রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার অভাবে পাশ হয়নি তিন তালাক বিল৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here