ডেস্ক: ২০০২ সালের ক্ষত আজও ভালো করে সারেনি গুজরাতে। এরই মাঝে ১৪ মাসের এক শিশুর যৌন নির্যাতনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে উঠল গুজরাত। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে উত্তরপ্রদেশ, বিহার থেকে গুজরাতে কাজের জন্য আসা মানুষেরা দলে দলে ছাড়তে শুরু করেছে গুজরাত।

ঘটনার সুত্রপাত ২৮ সেপ্টেম্বর হিম্মত নগরের গাম্বোইয়ে। সেখানে ১৪ মাসের এক শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় স্থানীয় সেরামিক কারখানার কর্মচারি রবীন্দ্র সাউ নামে এক যুবককে। বিহারের বাসিন্দা ওই যুবক গ্রেফতার হওয়ার পরই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গুজরাত। বিহার ও উত্তরপ্রদেশ থেকে কাজের সূত্রে আসা মানুষদের উপর হামলা চালাতে শুরু করে মেহসানা, সবরকাঁঠা, পাটন, গান্ধীনগর, আহমেদাবাদের স্থানীয়রা। ঘটনা এতটাই গুরুতর হয়ে ওঠে যে এক সপ্তাহের মধ্যে ১৭০ জন হামলাকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ভয়াবহ এহেন পরিস্থিতির জেরে প্রাণ বাঁচাতে গুজরাত ছাড়তে শুরু করেছে সেখানে কর্মরত উত্তরপ্রদেশ ও বিহারবাসীরা।

যদিও পুলিশের দাবি এই মুহূর্তে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের উপর এহেন হামলার তীব্র নিন্দায় সরব হয়েছেন সেখানকার রাজনৈতিক নেতারা। পাশাপাশি ওই যৌন নির্যাতনের ঘটনায় শুনানি এক মাসের মধ্যে করার জন্য হাইকোর্টের কাছে চিঠি লিখে আবেদন জানিয়েছেন গুজরাটের উপ মুখ্যমন্ত্রী নিতিন প্যাটেল। পাশাপাশি, রাজ্যবাসীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে শান্ত থাকার জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here