news international

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিশ্বে সবচেয়ে বেশি করোনার প্রভাব আমেরিকায়। অন্যান্য দেশের মতোই তাই সেখানে অনলাইনেই চলছে বেশিরভাগ লেখাপড়া। কিন্তু এসবের মাঝেই অদ্ভুত সিদ্ধান্ত নিল হোয়াইট হাউজ। ইউএস ইমিগ্রেসিন এন্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট (আইসিই) জানিয়ে দিয়েছে, যে সব ছাত্রদের অনলাইনে ক্লাস হচ্ছে, তাদের নিজের দেশে ফেরানো হবে।

আইসিই এক নির্দেশিকায় জানিয়েছে, ‘ননইমিগ্রান্ট এফ১ ও এম১ ভিসাধারী পড়ুয়া যারা এখন অনলাইনে ক্লাস করছে, তাদের ডিপার্ট করা হবে। নাহলে তাদের ইন পারসন ক্লাস করতে হবে, আইনতভাবে ছাত্র হওয়ার জন্য। তা নাহলে তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হবে।’ এছাড়া ওই নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, এবার থেকে যে সব পড়ুয়া অনলাইন ক্লাসের জন্য এনরোল হবে, তাদের আর ভিসা দেওয়া হবে না।

আমেরিকায় এমন অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে যেখানে ইন পারসন ক্লাস ও অনলাইন ক্লাস দুই হয়। এই নির্দেশিকায় পর সেই সব প্রতিষ্ঠানকে সুনিশ্চিত করতে হবে যাতে পড়ুয়ারা অনলাইন ক্লাসের পাশাপাশি ইন পারসন ক্লাসেও সমানভাবে উপস্থিত থাকে।

যদিও ট্রাম্প প্রশাসনের এই নির্দেশিকার পরই সমালোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে। সেনেটর বার্নি স্যান্ডার্স ট্যুইটারে লেখেন, ‘নির্মমতার বিচারে বর্তমান হোয়াইট হাউজের লোকজন সমস্ত সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছে। এই মহামারীর সময়েও বিদেশি পড়ুয়াদের ভয় দেখানো হচ্ছে। প্রানের ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস করো, নাহলে দেশে ফেরত যাও।’ স্বাভাবিক ভাবেই এই নির্দেশের পরে আমেরিকায় পাঠরত অসংখ্য বিদেশি পড়ুয়াদের মনে সংশয় দেখা দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here