narendra modi
Parul

মহানগর ডেস্কঃ গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে এখনো পরিচিত ভারত। যদিও মাঝে মাঝে প্রশ্ন ওঠে ভারতে গণতন্ত্র কতটা সুরক্ষিত সে ব্যাপারে। নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতায় আসার পর এই প্রশ্ন উত্থাপিত হয়েছে বহুবার। জাতীয় স্তরে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন এই ব্যাপারে। এবার আন্তর্জাতিক স্তরেও মোদি সরকারের আচরণ নিয়ে উঠল প্রশ্ন।

ads

‘গণতন্ত্র’ শীর্ষক এক আন্তর্জাতিক সভায় ভারত সরকারের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আমেরিকার প্রথম সারির কর্তা ডীন থম্পসন। অন্যান্য প্রতিনিধিদের সামনে তিনি বলেছেন, ‘ভারত বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ। গণতন্ত্রকে রক্ষা করার জন্য সেখানে রয়েছে কঠোর নিয়ম এবং বিচার ব্যবস্থা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক বেশ ভালো।’

এর পরেই ভারত সরকারকে নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ডীন। ‘তবে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে নেওয়া কিছু পদক্ষেপ বা আচরণ কতটা গণতন্ত্রের পরিপন্থী সে ব্যাপারে প্রশ্ন থাকছেই। সাধারণ মানুষের বাক স্বাধীনতা, ভাব প্রকাশের স্বাধীনতা এবং সাংবাদিকদের ক্ষমতা খর্ব করা মোটেও গণতান্ত্রিক ভাবনা নয়।’

মোদি সরকারকে নিয়ে সমালোচনা অবশ্য এই প্রথম নয়। আন্তর্জাতিক মহলে সম্প্রতি একাধিকবার সমালোচিত ভারত। বিশ্বের দরবারে সমালোচনা আবার খুব একটা পছন্দ করে না বর্তমান ভারত সরকার। অতীতের বিভিন্ন ঘটনা যার প্রমাণ। দেশের অভ্যন্তরীণ ঘটনা নিয়ে বিদেশের কেউ সমালোচনা করুক তা একেবারেই পছন্দ করেনা এখনকার ভারত সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here