নিষিদ্ধ হচ্ছে ব্যবহার, প্লাস্টিক নিয়ে স্টেশনে প্রবেশ করলেই হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা

0
662
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: প্লাস্টিক মুক্ত ভারত গড়ে তুলতে হবে। এটা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্বপ্নের প্রকল্প। তাই ভারতীয় রেলের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, আগামী ২ অক্টোবর থেকে রেলের কোথাও সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহার করা যাবে না। সেই নিয়ম লাগু হচ্ছে কলকাতার স্টেশনগুলোতেও। জানা গিয়েছে, এবার থেকে সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক (একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক) নিয়ে প্রবেশ করা যাবে না হাওড়া, শিয়ালদহের মতো স্টেশনগুলিতে। এই ধরনের প্লাস্টিকের বোতল, ক্যারিব্যাগ বা প্যাকেট নিয়ে ধরা পড়লে করা হবে জরিমানা। মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন ২ অক্টোবর থেকেই লাগু করা হবে এই নয়া নিয়ম।

গান্ধী জয়ন্তীর দিন থেকে আইআরসিটিসি–কে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সব যাত্রীদের থেকে প্যান্ট্রি কর্মীরা যাতে খালি খাবার জলের বোতল সংগ্রহ করেন। তা না হয় করা হল। কিন্তু প্লাস্টিকের ব্যবহার রুখতে কী ভাবে সচেতন করা হবে নিত্য রেলযাত্রীদের?‌ রেল সূত্রে খবর, প্লাস্টিক বোতল ব্যবহারের পরে যদি বিভিন্ন রেল স্টেশনে লাগানো ‘‌বটল ক্রাশিং মেশিনে’‌ সেই বোতলগুলি যাত্রীরা ফেলেন, তাহলে মোবাইল ফোনে যোগ করে দেওয়া হবে টাকা। অর্থাৎ মোবাইলে ক্যাশব্যাক পাওয়ার লোভে যদি যাত্রীরা প্লাস্টিক ত্যাগ করেন, এই চিন্তাভাবনা করতে রেলমন্ত্রক।

এই উদ্যোগ অবশ্য সাধু। তবে এই ধরনের বড় প্রকল্প সফল করার প্রধান রহস্য হল তদারকি চালিয়ে যাওয়া। এখানেই প্রশ্ন উঠছে নজরদারি কতটা হবে? সূত্রের খবর,‌ এই নজরদারি চালানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আইআরসিটিসি–কে।

উল্লেখ্য, স্বাধীনতা দিবসে জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশবাসীর কাছে আবেদন করেছিলেন যাতে তাঁরা সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করেন এবং প্লাস্টিকের জলের বোতলের পরিবর্তে অন্য বোতল ব্যবহার করেন। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি। তাই বাধ্য হয়েই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান প্যাকেটজাত জল এবং জলের বোতলের সংস্থার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বিকল্প পথ এখনও তাঁরা জানাতে পারেননি।
তাই রেলকেই বেছে নেওয়া হয়েছে প্রাথমিক পর্যায়ে।

কিন্তু কীভাবে মোবাইলে ক্যাশব্যাক দেওয়া? হবে‌ এই বিষয়ে রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান ভি কে যাদব জানান, প্রাথমিক পর্যায়ে দেশের বিভিন্ন স্টেশনে মোট ৪০০টি বটল ক্রাশিং মেশিন লাগানো হবে। যেসব যাত্রী এই মেশিন ব্যবহার করতে চাইবেন তাঁকে আগে ফোন নম্বর দিতে হবে। বোতল এই মেশিনের ভেতর দিলেই তাঁর ফোন নম্বর রিচার্জ হয়ে যাবে। এখন দেশের ১২৮টি স্টেশনে ১৬০টি বটল ক্রাশিং মেশিন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here