ডেস্ক: একে একে চলে যাচ্ছেন তাঁরা। প্রথমে সুচিত্রা সেন, তারপর সুপ্রিয়া দেবী, এবার ললিতা চ্যাটার্জী। কাকতালীয়ভাবে এরা সকলেই উত্তম কুমারের নায়িকা। বুধবার দুপুর ২ টা ৩৫ মিনিট নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। গতকাল হঠাৎ ব্রেন স্টোকে আক্রান্ত হন তিনি। তারপর তাঁকে তড়িঘড়ি শহরের এক বেসরকারি নার্সিং হোমে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, স্ট্রোকের পর তিনি কোমায় চলে যান। আর এদিন দুপুরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। উত্তম কুমারের সঙ্গে একের পর এক হিট সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

সমালোচকদের মতে তাঁর অভিনয় ছিল তৎকালীন অভিনেত্রীদের থেকে অনেক গুন এগিয়ে। তাঁকে অনেকে মডার্ন অভিনেত্রীও বলে থাকেন। ‘বিভাস’ সিনেমার মাধ্যমে উত্তম কুমারের বিপরীতে বাংলা সিনেমায় ডেবিউ করেন তিনি। তারপর একে একে ‘মোমের আলো’ ‘রাত আন্ধেরি থি’ ‘অ্যান্টনি ফিরিঙ্গী’ ‘সমান্তরাল’ ‘চিঠি’ ‘মেম সাহেব’ ইত্যাদি সিনেমায় দেখা গিয়েছিল তাঁকে। বলিউড ও টলিউড মিলিয়ে তাঁর অভিনয় দক্ষতা সর্বদা দর্শক থেকে সমালোচকদের নজর কেড়েছিল। তাঁর শেষ অভিনীত সিনেমা ছিল ‘জোনাকি’। যেখানে এক গুরুত্বপূর্ন চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। পরিচালক আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্তের ‘জোনাকি’ সিনেমায় তাঁর অভিনয় সকলের নজর কাড়ে। বিদেশে এই সিনেমা মুক্তি পেলেও ভারতে এখনও মুক্তি পায়নি এই সিনেমা। তিনি অরিন্দম শীল পরিচালিত ‘আসছে আবার শবর’ সিনেমায় গুরুত্বপূর্ন চরিত্রে অভিনয় করেন। চলতি বছরেই এই সিনেমা মুক্তি পায়। বলা যেতে পারে উত্তম কুমারের অভিনেত্রীদের মধ্যে তিনি অন্যতম সেরা অভিনেত্রী ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here