মহানগর ওয়েবডেস্ক: ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসের উৎসবে মেতেছে গোটা দেশ। বিশেষ এই দিনে সরকারের তরফে পুরস্কৃত করা হয় কর্ম ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখা দেশের নিরাপত্তা কর্মীদের। এই তালিকায় থাকে সেনা, আধাসেনা ও রাজ্য পুলিশ। তবে শুধু তারাই নন, চলতি বছরের স্বাধীনতা উৎসবে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কাজ করে চলা সাহসী দুই কুকুর বিদা ও শোফিকে সম্মানিত করল সরকার। কর্মক্ষেত্রে অসামান্য সাহসিকতা দেখানোর জন্য এই দুই সারমেয়কে সম্মানিত করা হয়েছে ‘চিফ অফ আর্মি স্টাফ কমেন্ডেশন কার্ডে’।

কুকুরের ঘ্রাণশক্তি ও ক্ষিপ্রতার জন্য ভারতীয় সেনাবাহিনী ও পুলিশ অত্যন্ত নির্ভরশীল একাধিক প্রজাতির কুকুরের উপর। সেনাবাহিনীতে এদের ভূমিকাও বরাবরই অসামান্য। গত ডিসেম্বরে শত্রুর উপর নজরদারি চালাতে অডিও ভিজুয়াল পদ্ধতিকে হাতিয়ার করেছিল সেনা। এবং এই পদ্ধতি কার্যকর করতে ব্যবহার করা হয়েছিল সেনাবাহিনীর কুকুরকে। তাদের বুলেট প্রুফ জ্যাকেট পরিয়ে নিরাপদ দূরত্ব রেখে শত্রুর গতিবিধি সম্পর্কে নেওয়া হতো খবরা-খবর। গুপ্তচর হিসেবে ব্যবহার করা হত কুকুরদের। ১ কিলোমিটারের নিরাপদ দূরত্ব রেখে ক্যামেরা ও ট্রান্সমিটারের সমস্ত ডেটা অ্যানালাইসিস করত তদন্তকারীরা সেইমতো শুরু হত অভিযান।

প্রসঙ্গত, সেনাবাহিনীতে কুকুরদের ইউনিটকে ‘নিরব যোদ্ধা’ হিসেবে ডাকা হয়। সেনার কাছে অত্যন্ত স্নেহভাজন এই কুকুরগুলি গুরুত্বপূর্ণ একটি সম্পদ। ক্ষিপ্রতা, সাহসিকতা ও বিশ্বস্ততায় তারা সত্যই এক একজন যোদ্ধা। এবং অবশ্যই সুরক্ষিত থাকার জন্য ভারতের প্রয়োজন তাদেরকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here