নতুন যুদ্ধক্ষেত্র, হিন্দি ট্যুইট নিয়ে অমিত শাহকে নিশানা পিনারাই বিজয়নের

0
436
kolkata bengali desk

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভাষার নামে নতুন যুদ্ধক্ষেত্র তৈরি হতে চলেছে৷ এদিন অমিত শাহের হিন্দি ট্যুইটের জবাব দিলেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন৷ গতকাল হিন্দি দিবসে এক দেশ, এক ভাষার পক্ষে সওয়াল করেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷ এরপর প্রথমে গর্জে ওঠে তামিলনাডু৷ দেশের নানা প্রান্তে এই নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে গেছে৷ আজ সরব হলেন বিজয়ন৷ এদিন ফেসবুক পোস্টে বিজয়ন লেখেন, হিন্দ দেশকে ঐক্যবদ্ধ করবে-এই ধারণা ঠিক নয়৷ দক্ষিণ ও উত্তর পূর্বের লোকেরা হিন্দি বলতে পারেন না৷

এর আগে সিদ্দারামাইয়া বলেছিলেন, বিরোধীরা হিন্দি বিরোধী নয়৷ কিন্তু জোর করে কোনও ভাষা চাপিয়ে দেওয়ার বিরুদ্ধে দেশ সরব৷ গতকাল এই নিয়ে সরব হয়েছিলেন ডিএমকে নেতা এম কে স্ট্যালিন৷ তাঁর কথায়, এটা ইন্ডিয়া, হিন্ডিয়া নয়৷ তামিল রাজনীতিবিদ প্রয়াত এম করুণানিধি নিজেই ছিলেন তামিলনাডুতে হিন্দি-বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ৷ তাই তাঁর ছেলে যে এই কেন্দ্রীয় সরকারের এক দেশ এক ভাষা চালু করার চেষ্টার বিরুদ্ধে গর্জে উঠবেন, তা বলাই যায়৷ এম কে স্ট্যালিন বলেছিলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায় ভারতের সার্বভৌমত্ব নষ্ট হবে৷ এটা যন্ত্রণাদায়ক ও নিন্দনীয় প্রস্তাব৷ হিন্দি চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হলে ডিএমকে সারা রাজ্যকে এককাট্টা করার চেষ্টা করবে৷

গতকাল অমিত শাহ ট্যুইট করে বলেন, গোটা দেশে হিন্দি ভাষা যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে চালু হলে তা মহাত্মা গান্ধী ও সর্দার প্যাটেলের স্বপ্নকে সত্যি করবে। হিন্দি ভাষার সমগ্র দেশকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসার ক্ষমতা রয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘ভারত বহু ভাষার দেশ। সব ভাষারই নিজস্ব গুরুত্ব রয়েছে। কিন্তু একটা সাধারণ ভাষা থাকা জরুরি, যা গোটা বিশ্বের কাছে দেশের পরিচয় হয়ে দাঁড়াবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here