ডেস্ক: অভাব অভিযোগ জানিয়ে মোদীর দরবারে ১৪১ মিটার দীর্ঘ চিঠি জমা দিলেন এই গ্রামের মানুষরা। এযেন একটা নজির গড়ার মতই ঘটনা বলা চলে। বিহারের মাধোপুরা জেলার ঘৈলাড় গ্রামের বাসিন্দারা এই চিঠি লিখেছেন। সেখানে তাদের সরকারের কাজকর্ম নিয়ে থাকা একাধিক অভিযোগের বিষয়ে উল্লেখ করেছেন। এই চিঠি প্রসঙ্গে ঐ গ্রামেরই এক কৃষক রাজেশ কুমার সিং জানান, প্রতিটি রাজ্যে বিদ্যুৎ, জল, রাস্তা, শিক্ষা এবং হাসপাতালের হাল একেবারে বেহাল। গ্রামে কিছু ক্ষেত্রে সংরক্ষণের সুবিধা থাকলেও সেটা যেন সবাই পান। কারণ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই সংরক্ষণের ক্ষেত্রে অস্বচ্ছতা দেখা যায়। রাজনৈতিক দলের বিশেষ সুবিধাপ্রাপ্তরাই শুধুমাত্র এই সংরক্ষণের সুবিধা পেয়ে থাকেন। যার ফলে এককথায় ওই গ্রামের নিম্নবিত্ত বাসিন্দাদের দুর্ভোগের শেষ নেই। সেই দুর্ভোগের কথা জানিয়েই গ্রামবাসীরা এই ১৪১ মিটার দীর্ঘ চিঠি লিখেছেন।

গ্রামবাসীদের দাবি প্রধানমন্ত্রী এই চিঠি দেখে গ্রামের সমস্যার সমাধান করুক। তবে এহেন চিঠি পাওয়ার পর মোদীর তরফে এখনও কোনওরকম প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। একপ্রকার ভোটের আগে নরেন্দ্র মোদী ঘরে বাইরে চাপের মুখে পড়েছেন। এদিকে একের পর এক বিজেপি নেতারা দল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছেন। আজকেই লাদাখের একজন প্রবীণ সাংসদ বিজেপির রাজ্য সভাপতি রিবীন্দ্র রায়নার কাছে পদত্যাগ পত্রের চিঠি দিয়ে দলত্যাগ করেছেন। এমত অবস্থায় বিজেপি শিবিরে আবার ১৪১ মিটার দীর্ঘ খোলা চিঠি দরবার, যাকে বলে ঘরে বাইরে চাপের সম্মুখীন এখন নরেন্দ্র মোদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here