মহানগর ওয়েবডেস্ক: ২০১৭ সালে ভারতীয় দলের কোচ হওয়ার জন্য অনেকটা এগিয়ে ছিলেন রাহুল দ্রাবিড়। কিন্তু ঠিক কী কারণে প্রাক্তন কিংবদন্তি ক্রিকেটার ও ক্যাপ্টেন কোচ হলেন না?

এই প্রশ্নটাই বারবার ঘোরপাক খেয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট ফ্যানেদের মনে। এমএস ধোনি ও বিরাট কোহলিদের মাথায় দ্রাবিড়ের বদলে এসেছেন রবি শাস্ত্রী।
কেন কোচ হননি দ্য ওয়াল? খোলসা করলেন সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরস (সিওএ)-এর প্রধান বিনোদ রাই। ভারতীয় ক্রিকেটে সিওএ এখন নিষ্ক্রিয়। কিন্তু সেই সময় দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে দেশের সর্বোচ্চ আদালত ক্রিকেট পর্যবেক্ষক কমিটিকেই দায়িত্ব দিয়েছিল।

স্পোর্টস ওয়েবসাইট ‘স্পোর্টসকিড়া’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রাই জানিয়েছেন যে, সম্পূর্ণ পারিবারিক কারণেই দ্রাবিড় সিনিয়র দলের কোচ হওয়ার দায়িত্ব নেননি। নিজের সন্তানদের কথা ভেবেই তিনি ইন্ডিয়া-এ ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচিং করানোই শ্রেয় মনে করেন।
রাই বলেন, “দ্রাবিড় কোচ হওয়ার জন্য অনেকটাই এগিয়ে ছিল। আমাদের মাথায় সবার আগে ওর নামটাই ছিল। কিন্তু দ্রাবিড় আমাদের খোলাখুলি জানায় যে, ওর দুই সন্তান বড় হচ্ছে। ফলে ভারতীয় সিনিয়র দলের সঙ্গে এভাবে সারা বিশ্ব ঘোরা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। ও নিজের বাড়িতে থেকে পরিবারকে সময় দেওয়ার কথা বলে। আমার মনে হয় ওর এই অনুরোধ যথার্থ ছিল।”

দ্রাবিড়ের পাশাপাশি জাহির খানেরও দলের সাপোর্ট স্টাফ হয়ে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বোর্ড কারোর সঙ্গেই চুক্তি করেনি আর। জাহির ২০১৭ সালে আইপিএল থেকে অবসর নেওয়ার পর ধারাভাষ্যকার হিসাবে নয়া ইনিংস শুরু করেন। অন্যদিকে দ্রাবিড় ব্যস্ত থাকেন দেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তৈরি করার কাজে। দ্রাবিড় এই মুহূর্তে বেঙ্গালুরুতে জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির দায়িত্ব সামলাচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here