kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: নির্বাচনে বাইক বাহিনীর দাপট, সীমানা সিল না করা, প্রশাসনিক আধিকারিকদের শাসক দলের হয়ে কাজ করার অভিযোগ তুলল সংযুক্ত মোর্চা। এই অভিযোগ তুলে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে আজ সন্ধ্যা থেকে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের ঘরে অবস্থান শুরু করেছে তারা। সিপিএম নেতা রবিন দেবের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল আজ মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাবের কাছে নির্বাচনে বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে ডেপুটেশন দিতে এসে কোনও প্রশ্নের উত্তর না পেয়ে এই অবস্থান শুরু করেছে।

দলের সদস্য শমীক লাহিড়ী সাংবাদিকদের বলেন, কসবা এবং ভাঙড় থানার আইসি শাসক দলের হয়ে পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণ করছেন। ভাঙড় এবং ক্যানিং পূর্বে বাইক বাহিনীর দাপট চলছে বলে তিনি জানান। প্রথম দুই দফার নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোটারদের পরিচয়পত্র পরীক্ষা করলেও তৃতীয় পর্ব থেকে সেটা কেন বন্ধ করে দেওয়া হলো, তা নিয়েও তিনি প্রশ্ন তুলেছেন। যতক্ষণ না পর্যন্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কাছ থেকে সব প্রশ্নের যথাযথ উত্তর পাবেন, ততক্ষণ এই অবস্থান চলবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, চতুর্থদফা ভোটের ঠিক আগেরদিন আজ শুক্রবার লাগমছাড়া হিংসা ও সন্ত্রাস দেখা গেল কসবায়। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা গতরাত থেকে আজ সকাল পর্যন্ত সমানে দৌরাত্ম্য চালায়৷ কাল ভোট দিতে গেলে কুন করা হবে বলে লোকজনকে তারা হুমকি দিয়েছে। অন্যদিকে, সিপিএম প্রার্থী শতরূপ ঘোষের অভিযোগ, গতকাল রাত থেকেই তৃণমূলিরা এই এলাকায় বিভিন্ন জায়গায় হামলা চালাতে শুরু করেছে৷ পুলিশ-প্রশাসনকে বারবার জানিয়েও কোনও সুরাহা হয়নি। সন্ত্রাস বন্ধ করতে হলে অবিলম্বে কসবা থানার ওসিকে বরখাস্ত করতে হবে বলে দাবি করেন শতরূপ। কসবা-সহ ভাঙড় নিয়ে একাধিক অভিযোগ তুলে কমিশনে যায় মোর্চা। ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে কমিশনের সিইও-র ঘরে অবস্থানে বসেন দলীয় নেতারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here