মহানগর ওয়েবডেস্ক: লকডাউন যেন আশীর্বাদ হয়ে উঠে এসেছে বিরাট কোহলি ও অনুষ্কা শর্মার জীবনে। কারণ দুই তারকার ব্যস্ততার জন্য একে অপরের সঙ্গে সময় কাটানোর সময়টুকু পেতেন না বিরুষ্কা। লকডাউনে একে অপরের সান্নিধ্য উপোভোগ করলেন চুটিয়ে।

সম্প্রতি ভোগ ম্যাগাজিনে এক সাক্ষাৎকারে সেই সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু কথা বলেছেন অনুষ্কা শর্মা। অভিনেত্রী হিসাবে অনুষ্কা বলিউডে কাজ কম রাখলেও বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক হিসেবে বিরাটের ব্যস্ততা থাকে চরমে। তার মাঝেই দেখা করার সুযোগ খুঁজে নিতে হয়।

এই বিষয়ে অনুষ্কা জানিয়েছেন, ‘আমাদের বিয়ের প্রথম ছয় মাস আমি বিরাটের সঙ্গে মাত্র ২১ দিন কাটাতে পেরেছি। তাই এই লকডাউন আমাদের কাছে আশীর্বাদ। কারণ বিয়ের পর এত লম্বা সময় একসঙ্গে কাটাতে পারছি এটা অনেক বড় ব্যাপার।’

অনুষ্কা আরও জানান, ‘অনেকেই আমায় দেখেছে যে বিরাট যেখানে খেলতে যায় আমি মাঝে মাঝেই সেখানে উপস্থিত হই। কিন্তু সেটা ছুটি কাটানোর জন্য নয় দুজনের জন্য একটু সময় ও কিছু আলাপ আলোচনা করার জন্য এটা করি।’
২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে সবার অলক্ষে ইতালির লেক কোমো–তে বিয়ের পাট চুকিয়ে ফেলেন বিরাট কোহলি ও অনুষ্কা শর্মা। দীর্ঘ বেশ কয়েকবছরের প্রেম পরিণতি পায় বিয়েতে। সোশ্যাল মিডিয়াতে দৌলতে এটা অজানা নয় যে এই লকডাউনে বিরাট ও অনুষ্কা কীভাবে একসঙ্গে তাদের দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন। নিজেদের অনুরাগীদের সঙ্গে কথা বলা কিংবা বিরাটের চুল কেটে দেওয়ার মজার ভিডিও পোষ্ট করেছেন দুই তারকা।

এই লক ডাউনের মাঝেই দর্শকদের দুটি বিশেষ কাজ উপহার দিয়েছেন অনুষ্কা। একটি ওয়েব সিরিজ ‘পাতাল লোক’ ও দ্বিতীয়টি ‘বুলবুল’ ছবি। অনুষ্কার প্রযোজনায় মুক্তিপ্রাপ্ত এই দুটি কাজই যথেষ্ট প্রশংসা কুড়িয়েছে দর্শকদের কাছ থেকে।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here