মহানগর ডেস্ক: ‘অন্তরের ডাকে’ দল ছেড়েছিলেন। ছেড়েছিলেন সাংসদ পদও। তার পর ১ মাসও কাটেনি। শনিবার বিজেপি-তে যোগ দিলেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী রবিবার কলকাতার ব্রিগেডে জনসভা করতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আগে শনিবার দিল্লিতে বিজেপি সভাপতি জেপি নড্ডা এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল দীনেশকে গেরুয়া শিবিরে স্বাগত জানান। রবিবার ব্রিগেডে মোদীর সভায় তাঁকে দেখা যেতে পারে বলে জল্পনা।

গত ১২ ফেব্রুয়ারি রাজ্যসভার অধিবেশন চলাকালীন নাটকীয় ভাবে তৃণমূল ছেড়েছিলেন দীনেশ। ইস্তফা দিয়েছিলেন সাংসদ পদ থেকেও। তৃণমূলে ‘দমবন্ধ’ হয়ে আসছে, তাই ‘অন্তরের ডাকে’ অন্য ভাবে মানুষের সেবা করতে চান বলে জানিয়েছিলেন। সেই থেকেই গোপনে বিজেপি-র সঙ্গে তাঁর কথাবার্তা চলছিল বলে খবর। মোদীর ব্রিগেডের আগে শেষ পর্যন্ত তাঁকে আনুষ্ঠানিক ভাবে দলে যোগদান করাল বিজেপি।

বাংলায় ভোটের ঠিক আগে বিজেপি-তে যাওয়ায়, নির্বাচনী কাজকর্মের চাপও ঘাড়ে এসে পড়তে পারে। তার জন্য প্রস্তুত তো তিনি? প্রশ্নের জবাবে দীনেশ বলেন, ‘‘এটা একটা সোনালি মুহূর্ত। অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলাম। প্রার্থী করা হোক বা না হোক, ভোটপ্রক্রিয়ায় দলে সক্রিয় ভূমিকা পালন করব।’’

পদ্মশিবিরে নাম লেখানোর পরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক হাত নেন দীনেশ। ‘খেলা হবে’ স্লোগানে রাজ্যে নির্বাচনী পারদ যখন চড়ছে, সেই নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘বাংলার মানুষ তৃণমূলকে প্রত্যাখ্যান করেছেন। তাঁরা উন্নয়ন চান, দুর্নীতি আর হিংসা নয়। পরিবর্তনের জন্য মুখিয়ে রয়েছেন বাংলার মানুষ। রাজনীতি কোনও খেলা নয়। উনি (মমতা) খেলার চক্করে আদর্শ ভুলে গিয়েছেন।’’

শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে গত বছর ডিসেম্বরে তৃণমূল থেকে বিজেপি-তে যাওয়ার যে হিড়িক শুরু হয়েছিল, ভোটের সপ্তাহ তিনেক আগেও তা অব্যাহত। দীনেশকে দলে পেয়ে নড্ডা বলেন, ‘‘দীনেশ সঠিক মানুষ। এত দিন ভুল দলে ছিলেন। এত দিনে ঠিক জায়গায় এলেন।’’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here