news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এক আমফান এসে জেরবার করে দিয়ে গিয়েছে দক্ষিণবঙ্গ তথা রাজ্য সরকারকে। সব কিছু লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে। করোনা পরিস্থিতির মাঝেই এই ঘূর্ণিঝড় সমস্যা দ্বিগুণ করে তুলেছে প্রশাসনের জন্য। এই অবস্থায় শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার ট্রেন আপাতত স্থগিত রাখার আবেদন জানিয়েছে রাজ্য সরকার। নবান্ন সূত্রে খবর, মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রককে চিঠি দিয়ে আবেদন জানিয়েছে, আগামী ২৬ মে পর্যন্ত যেন রাজ্যে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনের যাতায়াত বন্ধ রাখা হয়।

আমফান এসে চলে গিয়েছে তিনদিন হল। কিন্তু আজও বহু জায়গা বিদ্যুৎহীন, জলহীন, যোগাযোগহীন। তাই রাজ্যের কাছে এখন বড় চ্যালেঞ্জ এই প্রতিকূলতার সঙ্গে লড়াই করা। সে কারণেই আপাতত শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন রাজ্যে না পাঠানোর অনুরোধ জানিয়ে এই চিঠি দিয়েছে রাজ্য সরকার। এদিন এই প্রসঙ্গে কাকদ্বীপের বৈঠকে মমতা জানান, আমাদের এই সময় চারটে বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। এক তো করোনা, দ্বিতীয় লকডাউন। তৃতীয় হচ্ছে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরা। আর চতুর্থ এই বিধ্বংসী ঝড়। এমনটা আগে কখনও হয়নি।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে শ্রমিক ট্রেনে ঘরে ফিরছেন এ রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকরা। কড়া পর্যবেক্ষণে তাঁদের ঘরে ফেরানো হচ্ছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে করোনা উপসর্গ থাকার খবর মিলছে বিভিন্ন জেলা থেকে। কোয়ারান্টিনে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে তাঁদের। গত বুধবার ভয়াবহ আমফান বয়ে যাওয়ায় বিধ্বস্ত পশ্চিমবঙ্গের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। উদ্ধার ও ত্রাণ কার্যে ব্যস্ত সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন। এই সময় শ্রমিক ট্রেনে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর ব্যবস্থা করা অসম্ভব বলেই জানিয়েছেন রাজ্য সরকার।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here