ডেস্ক: কাশ্মীরে যারা পুলিশকে নিশানা করে পাথর ছুড়ছে, তাদের টি শার্টে জ্বলজ্বল করছে হিজবুল মুজাহিদিনের নিহত কমান্ডার বুরহান ওয়ানি ও পাকিস্তানের পতাকার ছবি৷ আর এতেই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে ভূস্বর্গে সীমান্তপারের জঙ্গিদের সঙ্গে পাথর ছোঁড়া কাশ্মীরি তরুণ-যুবকদের যোগাযোগ৷ ইদানীং এই ধরনের টি শার্ট পরা যুবকরা প্রকাশ্যেই ঘুরে বেড়াচ্ছে, পুলিশ-নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের নিশানা করে ছুড়ে মারছে পাথর৷

কিছুদিন আগে মেহবুবা মুফতি সরকার জানিয়েছিল গত তিন বছরে উপত্যকায় ৪৭৯৯টি পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ঘটেছে ৷ শুধু ২০১৭ সালেই পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে ১২৬১টি৷ পাথর ছোঁড়া কাশ্মীরি তরুণ-যুবকদের প্রথম নিশানা নিরাপত্তা বাহিনীই৷ ওই বছর পাথর ছোঁড়ার অভিযোগে এক কাশ্মীরি যুবককে জিপের সঙ্গে বেঁধে রাখে সেনাবাহিনী৷ সেই ঘটনার পর কড়া সমালোচনার মুখে পড়ে তারা৷ দিল্লিতে টি শার্টে ওই ছবি ছেপে বিক্রিও করেন৷ তা নিয়ে প্রবল হইচই হয়৷

সম্প্রতি মেহবুবা মুফতি পাথর নিক্ষেপকারীদের পরিবারের প্রতি সহানুভূতি জানানোয় এবারের ঘটনা আরও জটিল হয়ে উঠেছে ৷ এপ্রিলের পাঁচ তারিখে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সঙ্ঘর্ষে নিহত গওহর আহমেদ রাথের নামে এক পাথর নিক্ষেপকারী কাশ্মীরি যুবকের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন মেহবুবা৷ সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছিলেন, সঙ্ঘর্ষে কয়েকজন পর্যটকের আহত হওয়ার বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে ৷ এক শ্রেণির সংবাদমাধ্যম বিষয়টিকে খারাপভাবে তুলে ধরেছে৷ এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা৷ এর নিন্দা করা উচিত৷ উপত্যকা নিরাপদেই রয়েছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here