kolkata news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের জেরে চলতি অধিবেশনে আগেই নানা বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী বিধানসভা চত্বরে লোকের ভিড় কমাতে উদ্যোগী হয়েছিলেন স্পিকার। কিন্তু এবার বিধানসভার অধিবেশন আপাতত মুলতুবি করে দেওয়া নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করা হয়েছে। সোমবার থেকে রাজ্যের সব স্কুল কলেজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি দেওয়া হয়েছে। বন্ধ থাকছে আদালতও। এবার বিধানসভা অধিবেশন স্থগিত রাখার ভাবনা।

সূত্রের খবর, আগামী বুধবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হতে পারে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য সোমবার সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়েছে৷ ওই বৈঠকেই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও শুক্রবার অধিবেশনের সূচনার দিনেই বিধানসভার অধিবেশন কাটছাঁটের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন স্পিকার। বিধানসভা চত্বরে লোকসমাগমের উপরেও নিষেধ আরোপ করেছিলেন। বিধায়ক থেকে শুরু করে সাধারণ দর্শক, এমনকি সাংবাদিকদের ওপরেও এই বিধিনিষেধ কার্যকর করা হবে বলে স্পিকার জানিয়েছেন। বিধানসভায় সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাস নিয়ে কেন্দ্র যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে বলেছে সেই অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সকলের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থেই বিধিনিষেধ মেনে চলবে চলতি অধিবেশন।’ অধ্যক্ষ জানান, এই অধিবেশনে বিধায়করা তাদের সঙ্গে একজনের বেশি লোক নিয়ে বিধানসভায় ঢুকতে পারবেন না। প্রতিবার বিধায়কদের অতিথি হিসাবে অধিবেশন দেখতে বহু লোক বিধানসভার দর্শকদের গ্যালারিতে উপস্থিত থাকেন। বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদেরও আমন্ত্রণ জানানো হয়। এবার তা বাতিল করা হচ্ছে। সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের সংখ্যাও বেধে দেওয়া হচ্ছে। নির্ধারিত সংখ্যার বেশি সাংবাদিক এবং চিত্র সাংবাদিকরা এবার একসঙ্গে বিধানসভায় ঢুকতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন স্পিকার।

রাজনৈতিক মহলের ধারণা, যদি বিধানসভা মুলতুবিই রাখতে হয় তবে অন্তত একটা দিন সময় নেওয়া হবে৷ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস করিয়ে বুধবার থেকেই বিধানসভার দরজা বন্ধ করা হতে পারে।গত শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে বিধানসভার বাজেট অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্ব। আগামী ২৬ তারিখ পর্যন্ত অধিবেশন চলার কথা ছিল। কিন্তু বিধি বাম৷ সংক্রমণ রুখতে যখন প্রকাশ্য সমাবেশ না করার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্র। সেই পথেই হাঁটছে একাধিক রাজ্য সরকার।এই বিধানসভা অধিবেশনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল দফাওয়ারি বাজেট। সম্প্রতি রাজ্যে বাজেট অধিবেশন সম্পন্ন হয়েছে গত মাসেই। এই অধিবেশনে সেচ, শিক্ষা সহ বিভিন্ন দপ্তরের বাজেট পাস হওয়ার কথা ছিল। পরিবহন দপ্তরের ট্যাক্স সংক্রান্ত বিল পেশও হওয়ার কথা ছিল এই অধিবেশনেই।

এই রাজ্যে এ যাবৎ কোনও সংক্রমণের খোঁজ মেলেনি৷ তবু আগাম সুরক্ষায় কোনও ফাঁক রাখতে চায় না বিধানসভা কর্তৃপক্ষ৷ তাই আপাতত অধিবেশন মুলতুবি রাখা হবে বলেই অনুমান রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here