kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, উত্তর দিনাজপুর: ‘এই বাংলায় খুনের রাজত্ব, ডাকাতির রাজত্ব এবং লুটের রাজত্ব চলছে। এর পরিবর্তন করতে হবে। আর মাত্র দশটা মাস অপেক্ষা করুন,  যাদের জেলের ভাত খাওয়ার কথা তারা জেলের ভাত অবশ্যই খাবেন।‘  প্রয়াত বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের স্মরণসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘কেন্দ্র সরকার গ্রামের গরিব মানুষদের উন্নয়নের জন্য, এলাকার উন্নয়নের জন্য হাজার হাজার কোটি টাকা রাজ্য সরকারকে দিচ্ছে। আর এই বাংলার তৃণমূল সরকার সেই টাকা লুট করে খাচ্ছে। এই সরকার আর চলতে পারে না। হেমতাবাদের বালিয়ামোড় এলাকায় প্রয়াত দলীয় বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের স্মরণসভায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু,  বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ি-সহ শীর্ষ নেতৃত্ব।

প্রয়াত দলীয় বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের স্মরণসভায় যোগ দিয়ে বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘ রাজ্যে এমন একটি সরকার চলছে যেখানে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার নেই, রাজনীতি করার অধিকার নেই। সরকার অন্যায় করলে তার সমালোচনা করার অধিকার নেই। এই ধরনের সরকার চলতে পারে না।‘

তিনি আরও বলেন, ‘রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশে পুলিশ বিজেপি কর্মী ও কার্যকর্তাদের ওপর অন্যায় ভাবে কেস চাপাচ্ছে। হাজার হাজার বিজেপি কর্মী ও কার্যকর্তাদের ওপর কেস দিয়েছে। বহু বিজেপি কর্মী ঘরছাড়া হয়ে আছেন। এরাজ্যের মানুষের উন্নয়নের টাকা লুট করছেন তৃণমূল নেতারা। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা থেকে শুরু করে রেশন, মিড-ডে মিলের টাকা সব লুট করছে এই সরকার। আর এভাবে বেশিদিন চলবে না। মাত্র দশমাস বাকি আছে। এরপর মানুষ এই সরকারকে বরখাস্ত করবে। তখন যাদের জেলের ভাত খাওয়ার কথা তারা জেলের ভাতই খাবেন।‘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here