ডেস্ক: নেতাজিকে দেশবাসীর মনে রহস্যের শেষ নেই। সরকারের তরফে বহু প্রতিশ্রুতি তদন্ত সত্ত্বেও এখন মৃত্যুর রহস্যের পাওয়া যায়নি কোনও যুক্তিযুক্ত সঠিক ব্যাখ্যা। এরই মাঝে এক বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন নেতাজির প্রোপৌত্র আশিস রায়। যা নিয়ে নতুন করে জলঘোলা শুরু হল নেতাজির অন্তর্ধান রহস্য নিয়ে।

সম্প্রতি নিজের লেখা এক বইতে আশিস রায়ের দাবি, ‘দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহেরু থেকে মোদী সরকার প্রত্যেকেই জানেন নেতাজির অন্তর্ধান রহস্য। কিন্তু কেউ কোনও টুঁ শব্দটি করেন না। এমনকি তাঁর চিতাভস্মও দেশে ফেরানোর চেষ্টা করেনি কোনও সরকার। টোকিয়োর রেনকোজি মন্দিরে নেতাজির চিতাভস্ম সংরক্ষণ করে রাখা আছে। কিন্তু কয়েকটি রাজনৈতিক দলের আপত্তির জন্যই তা দেশে ফেরানো হয়নি। নিজের লেখা “Laid to Rest: The Controversy over Subhas Chandra Bose’s Death” বইতে তিনি তিনি প্রশ্ন তুলেছেন দেশের একজন স্বাধীনতা সংগ্রামী, একজন মহান হিরোর মৃত্যু রহস্যের খবর কেন স্পষ্ট করছে না সরকার। কেনই বা তাঁর চিতাভস্ম দেশে ফেরান হচ্ছে না। একইসঙ্গে ১১ টি আলাদা আলাদা তদন্তের ভিত্তিতে এই বইটি লিখেছেন আশিস রায় যেখানে তিনি অবশ্য দাবি করেছেন ১৯৪৫ সালের ১৮ আগস্ট তাইপেইতে বিমান দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল নেতাজির।

ওই বইতে আশিস রায়ের আরও দাবি, স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর মৃত্যুর পর তাঁর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা না জানিয়ে অন্যায় করেছে দেশ। একইসঙ্গে বইতে বলা হয়েছে, ১৯৯৫ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিভি নরসিংহ রাও ও বিদেশমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় চিতাভস্ম ফেরানোর চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু সেই চেষ্টা সফল হয়নি। বলা ভালো ইচ্ছাকৃতভাবে সফল করানো হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here