মেধাবী রিয়া কেন হস্টেলে আত্মহত্যা করলেন, বুঝতে পারছেন না বাড়ির লোক

0
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়া: কথা দিয়ে গিয়েছিল এবার এলে সবাই মিলে যাবে বনভোজনে করতে। কিন্তু তা আর হয়ে উঠল না। পুজোর ছুটি শেষে যাওয়ার সময় বাড়ির সকলকে কথা দিয়ে যায় রিয়া। ইচ্ছা ছিল নার্সিং পড়ার। সেই সুযোগও মিলেছিল। তার পরেও কেন আত্মহত্যা করল মিশুকে মেধাবী রিয়া, তা বুঝে উঠতে পারছেন না আত্মীয়-স্বজনরা।
সোমবার দুপুরে পূর্ব বর্ধমান জেলার একটি নার্সিং ট্রেনিং স্কুলের হস্টেলের ঘর থেকে উদ্ধার হয় বছর উনিশের রিয়া দে-র ঝুলন্ত মৃতদেহ। রিয়ার বাড়ি বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর ব্লকের বনমালিপুর গ্রামে। স্থানীয় মানিকলাল সিংহ স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ৮৭.৫ শতাংশ নম্বর পেয়ে মাধ্যমিক পাস করেছিল রিয়া। তারপরে ভর্তি হন পাত্রসায়র বালসি হাইস্কুলে। ২০১৮ সালে ৮৯.৫ শতাংশ শতাংশ নম্বর পেয়ে উচ্চমাধ্যমিক পাস করে সে।

ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও উচ্চ মাধ্যমিকের পরে নার্সিং-এ ভর্তি হতে পারেনি রিয়া। ভর্তি হয় বর্ধমান মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভূগোলে অনার্স নিয়ে। এই বছরই স্বল্পমেয়াদি এএনএম নার্সিং প্রশিক্ষণের সুযোগ পান রিয়া। বর্ধমানের ওই নার্সিং স্কুলে পড়তে পড়তে চাকরি পাওয়ার সুযোগ পাওয়া যায়। তাই বাড়ির সকলকে বলেছিলেন, পাঁচ বছর যেন বিয়ের বন্দোবস্ত না করে। চাকরি সে পাবেই। এতটাই আত্মবিশ্বাসী ছিলেন চাকরি পাওয়া নিয়ে। তাই ওই কোর্স নিয়ে মোটের ওপরে সন্তুষ্ট ছিলেন রিয়া। কিন্তু তার পরেও কেন এই ঘটনা ঘটল, সেই নিয়ে রিয়ার পরিবারে ধোঁয়াশা কাটছে না কিছুতেই

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সকালে রিয়ার বাবার মোবাইলে প্রথমে একটি ফোন আসে, তাঁকে বলা হয় মেয়ে অসুস্থ। বাবা-মা বাসে চেপে রওনা হন। এক মামা থাকেন বর্ধমানে। তাঁকে ফোন করে খোঁজ নিতে বলেন তিনি। তিনিই প্রথম খবর নিয়ে মৃত্যু সংবাদ দেন বাড়িতে। বনমালীপুরের বাড়িতে কান্নার রোল ওঠে। ভেঙে পড়েছেন আত্মীয়-স্বজন সকলেই। রবিবার বিকেলে রিয়া সঙ্গে শেষ কথা হয় ফোন মারফত। আর তারপরে কী এমন ঘটল, যে এত বড় একটা সিদ্ধান্ত নিলেন রিয়া, সেটা কেউ বুঝে উঠতে পারছেন না।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিবার এবং গোটা গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বর্ধমান পুলিশ। আপাতত সেদিকেই তাকিয়ে রিয়ার পরিবার। সবাই চাইছেন ঘটনার সঙ্গে কোনও ভাবে কেউ যুক্ত থাকলে তার যেন শাস্তি হয়। হস্টেলে র‍্যাগিংয়ের অভিযোগও তুলেছেন কেউ কেউ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here