Home Latest News স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে ঠেকাতে এবার শ্বশুরবাড়িতে এসে ধর্নায় বসলেন স্ত্রী! চাঞ্চল্য মোথাবাড়িতে

স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে ঠেকাতে এবার শ্বশুরবাড়িতে এসে ধর্নায় বসলেন স্ত্রী! চাঞ্চল্য মোথাবাড়িতে

0
স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে ঠেকাতে এবার শ্বশুরবাড়িতে এসে ধর্নায় বসলেন স্ত্রী! চাঞ্চল্য মোথাবাড়িতে
Parul

নিজস্ব প্রতিবেদক, ইংরেজবাজার: স্বামী দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছে। এই খবর পেয়ে নদিয়া থেকে হন্তদন্ত হয়ে ছুটে আসল স্ত্রী। তবে শ্বশুরবাড়ি লোকেরা বাড়িতে ঢুকতে বাধা দিলে শ্বশুরবাড়ির সামনেই ধর্নায় বসে পড়লেন স্ত্রী। সঙ্গ দিলেন পাড়া প্রতিবেশিরাও। এদিন সকালে এই ঘটনা ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো
মালদা জেলার সদর মহকুমার মোথাবাড়ি থানার বাবলা গ্রাম পঞ্চায়েতের কমলপুর এলাকায়। ঘটনার জেরে ওই মহিলার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির আচরণে রীতিমতো ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

জানা গিয়েছে, ২০১৪ সালের ২৯শে জুন ব্যাঙ্গালোরে কর্মরত ওয়াসিম আক্তারের সঙ্গে বিয়ে হয় তারই বান্ধবী সোনিয়া শেখের। সোনিয়ার দাবি প্রথম দিকে সব কিছু ঠিকঠাকই ছিল। তিনি ও তার স্বামী ব্যাঙ্গালোরেতে চাকরি করতেন ও সেখানেই সংসার করতেন। ২০১৮ সাল নাগাদ তার স্বামী ওয়াসিম মালদার মোথাবাড়িতে নিজের বাড়িতে ফিরে আসে। তাদের মধ্যে এই নিয়ে সামান্য পারিবারিক বিবাদও হয়। যদিও কিছুদিন পর তিনিও এসে তার শ্বশুরবাড়িতে থাকতে শুরু করেন। কিন্তু তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করতেন। আর এই কারনেই তিনি তার বাবার বাড়ি নদিয়াতে চলে যান। সম্প্রতি তিনি জানতে পারেন তার স্বামী ওয়াসিম আক্তার আবার দ্বিতীয় বিয়ে করতে চলেছেন। আর এই খবর পাওয়ার পরই তিনি নদিয়া থেকে মালদায় ছুটে আসেন। কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে ঢুকতে গিয়ে তাকে শ্বশুরবাড়ির লোকেদের বাধার সম্মুখীন হতে হয়। তার মুখের ওপর গেট আটকে দেয় তার শ্বশুর। বাধ্য হয়ে তিনি মোথাবাড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়ে শ্বশুরবাড়ির সামনে ধর্নায় বসেন।

kolkata bengali news

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো ক্ষুব্ধ গ্রামের মানুষজন। তারা জানিয়েছেন, এই গৃহবধু সঠিক কাজই করছে। তারা তার পাশে আছেন। কোন মতেই দ্বিতীয় বিবাহ করা এভাবে তারা মানবেন না।
এদিকে মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমেছে মোথাবাড়ি থানার পুলিশ। এ নিয়ে অভিযুক্ত ওয়াসিম আক্তার সংবাদমাধ্যমের সামনে আসতে চাইনি। এমনকি সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা তার বাড়িতে গেলে তার বাবা গোলাম মোস্তফা গেট পর্যন্ত খুলতে চাননি। তিনি বলেন তার পক্ষে তার পুত্রবধূকে বাড়িতে ঢুকতে দেওয়া সম্ভব নয়। পুত্রবধুর বিরুদ্ধে একরাশ কটূক্তি করেন তিনি। ওই এলাকা থেকে নির্বাচিত পঞ্চায়েত সদস্য প্রসেনজিৎ ঋষিও ওই মেয়েটির পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন আমরা তার পাশে আছি। এই বিয়ে কিছুতেই হতে দেব না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here