news sports

মহানগর ওয়েবডেস্ক: যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানের ক্রিকেটীয় উত্থান বাইশ গজের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। সে দেশের স্টার ক্রিকেটার রশিদ খানের উঠে আসা যেন রূপকথার গল্প।
এই মুহূর্তে বছর বাইশের রশিদ বিশ্বের এক নম্বর টি-২০ বোলার। তাঁর বল সেরকম টার্ন করে না ঠিকই, কিন্তু গতি আর বৈচিত্র্যের যুগলবন্দিতে তিনি তাবড় ব্যাটসম্যানকে অনায়াসে নাস্তানাবুদ করেন। অনেকেই তাঁর বোলিংয়ের সঙ্গে প্রাক্তন পাক অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদির মিল পান।
আফগান অলরাউন্ডার মহিলামহলেও যথেষ্ট জনপ্রিয় তাঁর সুদর্শন সত্তার জন্য। কিন্তু সম্প্রতি এমন কথা রশিদ বললেন যা শুনে তাঁর মহিলা ফ্যানেরা কিছুটা হলেও স্বস্তি পাবেন। আপাতত সিঙ্গল থাকছেন রশিদ। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর দেশকে বিশ্বকাপ জেতানো না-পর্যন্ত তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন না।

রশিদ আজাদি রেডিওতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তাঁর বাসনার কথা। তিনি সেখানে বলছেন, “আফগানিস্তান বিশ্বকাপ জেতার পরেই আমি বিয়ে করব।”

করোনা থাবা না-বসালে রশিদকে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে আইপিএলে দেখা যেত। শেষবার তিনি গত মার্চে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলেছেন। তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ আফগানরা ছিনিয়ে আনে। রশিদ মোট পাঁচ উইকেট নেন আইরিশদের বিরুদ্ধে।

২০১৯ সালে রশিদ আফগানিস্তান দলের সীমিত ওভারের অধিনায়ক হিসেবে নির্বাচিত হন। যদিও পরে আসগর আফগান তাঁর বদলে ক্যাপ্টেনসি করেন। রশিদ চারটি টেস্ট (২৩ উইকেট) , ৭১টি ওয়ানডে (১৩৩টি উইকেট), ৪৮টি টি-২০ (৮৯টি উইকেট) খেলেছেন। আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে ২১.৬৯-এর গড়ে ৫৫টি উইকেট নিয়েছেন। তাঁর ইকোনমি ৬.৫৫।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here