মহানগর ওয়েবডেস্ক: টাকিতে সভায় মোদী। আগরপাড়া একই সময় সভায় মমতা। একজন পাশ কাটিয়ে বেরিয়ে গেলেও একবারও বিদ্যাসাগরের নাম মুখে আনলেন নরেন্দ্র মোদী। এদিন আগরপাড়ায় বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গন থেকে দমদমের তৃণমূলপ্রার্থী সৌগত রায়ের সমর্থনে সভা করেন মমতা। মূর্তি ভাঙা নিয়ে প্রমাণ সহ স্টেজে অডিও থেকে ভিডিও ক্লিপ, সবই দেখিয়ে ও শুনিয়ে দিলেন।

মঙ্গলবার বিদ্যাসাগর কলেজে তাঁর মূর্তি ভাঙার পর থেকেই আক্রমণের তেজ কয়েক গুণ বাড়িয়ে ফেলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগরপাড়ার সভাতেও ব্যতিক্রম হওয়ার কোনও আশঙ্কাই ছিল না। তৃণমূলের উপর বিজেপির পাল্টা অভিযোগ উড়িয়ে দেন মমতা আরও দাবি করেন, এই গণ্ডগোলের পরিকল্পনা আগে থেকেই করে রেখেছিল বিজেপি। এর স্বপক্ষে ভিডিও ক্লিপের একটি অংশও শোনান মমতা। বলেন, ‘মূর্তি কে ভেঙেছিল তার প্রমাণ আছে। বিজেপি কাজ দেখলে লজ্জা হয়। আবার বলছে আমরা নাকি ভেঙেছি। বিদ্যাসাগরের উপর হামলা মানে বাংলার উপর আক্রমণ। লজ্জা হয় না?’

অভিযোগ তুলে মমতা আরও বলেন, অমিত শাহের রোড শো-তে ঝাড়খণ্ড, বিজেপি, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান থেকে গুন্ডা নিয়ে এসেছিল বিজেপি। সব গেস্ট হাউসে এসে ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে ওদের গুন্ডারা। আমি বলে দিয়েছি গেস্ট হাউস খালি করতে। বিজেপি সভাপতির রোড শো-কে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘হনুমান সাজিয়ে মিছিল করেছে, এটা রাজনৈতিক মিছিল নাকি চরকের মিছিল।’ বাংলার সংস্কৃতি ধ্বংস করতে চাইছে বিজেপি। এরা বাংলার সংস্কৃতি, ঐতিহ্য জানে না, এদিনের সভা থেকে বলেন মমতা।

মোদীকে একহাত নিয়ে শেষে এদিন সর্বোচ্চ তেজ নিয়ে ঝাঁপান মমতা। বলেন, উনি এসে ১৫টা সভা করলেও কিচ্ছু আসে যায় না। মোদী যত আসবে ততই মঙ্গল হবে। কারণ তোমার মুখ দেখলে লোকে এমনই ভোট দেবে না।

 

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here