ডেস্ক: হাসপাতালে বেড না পেয়ে কার্যত বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হল সাত মাসের এক শিশুর। ঘটনার জেরে অভিযোগের আঙুল উঠেছে এসএসকেএম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দিকে। মৃত ওই শিশুর নাম তনিমা সরকার। নদীয়া জেলার হরিণঘাটার বাসিন্দা ছিল সে। পরিবারের অভিযোগ, গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালের আইসিইউ বেডের প্রয়োজন ছিল তার। ডাক্তাররাও একই কথা বলে। কিন্তু বার বার বলা সত্ত্বেও আইসিইউতে বেডের ব্যবস্থা করেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যার ফলেই মৃত্যু হয়েছে তনিমার।

পরিবারের তরফে জানা গিয়েছে, গত শনিবার খেলতে গিয়ে পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পায় তনিমা। ওই অবস্থাতে দ্রুত তাকে ভর্তি করা হয় স্থানীয় হাবড়া জেলা হাসপাতালে। সেখান থেকে তাকে পাঠানো হয় আরজিকর হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার ব্যাপক অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে শিশুটিকে রেফার করা হয় এসএসকেএমে। সেখানে হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান পড়ে গিয়ে মাথার ভিতর রক্ত জমাট বেঁধেছে তনিমার। তাকে অবিলম্বে আইসিইউতে ভর্তি করা প্রয়োজন। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, কোনও বেড ফাঁকা নেই। বারবার অনুরোধ সত্ত্বেও বেডের ব্যবস্থা করে দেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এমনকি বেডের বিষয়ে কোনও সাহায্য করতে পারেনি চিকিৎসকরা। বেড না পেয়ে হাসপাতাল চত্ত্বরে কার্যত বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হয় তনিমার।

এই ঘটনার জেরে রীতিমতো রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় এসএসকেএম হাসপাতাল চত্ত্বর। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও চিকিৎসকদের সঙ্গে তিব্র বাদানুবাদের জড়িয়ে পড়েন তার পরিবারের লোকজন। অভিযোগ তোলা হয় দালাল রাজের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে এই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। আর তার জেরেই বেড মেলেনি তনিমার। যদিও পরে ভবানীপুর থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here