নিজস্ব প্রতিবেদক, রানাঘাট: মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় বাড়ির ভেতরে মহিলাদের মারধরের অভিযোগ উঠলো প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়া জেলার রানাঘাট মহকুমার শান্তিপুর থানার মৈত্র পাড়া এলাকায়। অভিযুক্তর নাম শৈলেন কর্মকার। অভিযোগ ওই একই পাড়ার বাসিন্দা সুভাষ স্যানালের বাড়ির সামনে প্রায় প্রতিদিনই মদ্যপান করত শৈলেন। পাশাপাশি মদ খেয়ে চলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ। শনিবার কিছুটা বাধ্য হয়েই প্রতিবাদ করেন সুভাষ স্যানাল। জানা যায় সেদিন রাতেই শৈলেন সুভাষবাবুর বাড়িতে চড়াও হয়ে তাকে মারধর করতে থাকে। তা দেখে তার বাড়ির মহিলারা বাধা দিতে এগিয়ে এলে তাদেরকেও মারধর করে শৈলেন। এমনকি মারধরের হাত থেকে রেহাই পাননি বাড়িতে থাকা এক প্রতিবন্ধী মহিলাও।

সুভাষবাবুর বাড়ি থেকে চিৎকার চেঁচামেচির আওয়াজ পেয়ে পাড়া প্রতিবেশিরা এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় শৈলেন। পাড়ার লোকেরাই আহত মহিলাদের উদ্ধার করে শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু রবিবার সকালে ফের সুভাষবাবুর বাড়িতে চড়াও হয় শৈলেন। এদিন এসে সে সুভাষবাবুকে খুনের হুমকি দিয়ে যায় বলে অভিযোগ। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তারপরেই শান্তিপুর থানায় অভিযোগ জানান সুভাষবাবু। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ। যদিও অভিযুক্ত এখনও অধরা। স্বাবাভিক ভাবেই এরকম একটা ঘটনার কারনে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে সুভাষ স্যানালের পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here