নিজেস্ব প্রতিবেদক, রামপুরহাট: কর্মসূত্রে ভিন রাজ্যে থাকেন স্বামী, আর সেই সুযোগে প্রতিবেশী যুবকের সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন এক গৃহবধূ। কিন্তু হঠাৎ এই অবৈধ সম্পর্ক অবনতির দিকে চলে যায়। আর সেই কারণেই গৃহবধূকে খুন এবং তার শিশুপুত্র ও মেয়েকে মেরে ফেলার চেষ্টা করল প্রতিবেশি যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার গভীর রাতে বীরভূম জেলার রামপুরহাট মহকুমার মুরারই থানার জাজিগ্রাম এলাকায়। জখম দুই ছেলে ও মেয়েকে রামপুরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানেই চলছে তাদের চিকিৎসা। অভিযুক্ত ইতিমধ্যেই এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত গৃহবধূ হলেন শরবানু বিবি (৩৫)। গুরুতর জখম আড়াই বছর বয়সী ছেলে রেহান শেখ এবং ১৫ বছর বয়সী মেয়ে মুস্কান খাতুন। মুস্কান এর অবস্থা আশঙ্কাজনক। অভিযোগ ওই গ্রামেরই যুবক মংলা শেখ গতরাতে গৃহবধূর বাড়িতে ঢুকে তিনজনকেই এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। আক্রান্তদের চিৎকার-চেঁচামেচিতে প্রতিবেশীরা জড়ো হয় এবং অভিযুক্ত মংলা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় প্রথমে তাদের পাইকর ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে শরবানুকে সেখানে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। সেখান থেকেই তার ছেলে ও মেয়েকে রামপুরহাট হাসপাতালে রেফার করা হয়। জানা গেছে, ওই গৃহবধূর স্বামী মঞ্জু শেখ কর্মসূত্রে আসামে থাকেন। সেই সুযোগে মংলার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন ওই গৃহবধূ। সম্প্রতি তাদের দুজনের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হয় বলে শোনা যায়। সেই আক্রোশেই ঘটে এই খুনের ঘটনা। তবে কি কারণে তাদের সম্পর্কের অবনতি হয়েছিল সেটা এখন জানা যায়নি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here