news bengali kolkata

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জ্বর, হাঁচি, কাশির মতো করোনার উপসর্গ নিয়েই কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে ফুটফুটে পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন এক মহিলা। বুধবার করোনার উপসর্গ নিয়ে ওই গর্ববতী মহিলা হাসপাতালে ভর্তি হন। সূত্রের খবর, বর্তমানে মা ও সন্তান দুজনেই সুস্থ্য আছেন। যদিও তাদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

মেডিক্যাল কলেজের এক ডাক্তার জানান, ‘ওই মহিলার উপসর্গগুলি খুবই মৃদু। তবুও বর্তমান সময়ে আমরা কোনও ঝুঁকি নিতে চাইনি। কোভিড-১৯ এর কিছু লক্ষণ থাকলেও আমরা রোগীকে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে দেখভাল করছি। তবে সৌভাগ্যের বিষয় প্রসবের পর থেকেই ওনার শারীরিক অবস্থার অনেক উন্নতি হয়েছে। তবে তাকে এখনো আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। কিন্তু মনে হয় না তার পরীক্ষা করার দরকার পড়বে।’

বুধবার ভর্তি হওয়ার পরেই তার জ্বর ও কাশি হওয়ায় তাকে করোনার স্ক্রিনিংয়ের জন্য বিশেষ বিভাগে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু এরই মধ্যে প্রসববেদনা ওঠে ওই মহিলার। সঙ্গে সঙ্গে গায়নোকোলজি ও অবট্রেটরিক্স বিভাগেও খবর দেওয়া হয়। কিছুক্ষনের মধ্যেই তাকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়া হয় এবং তার চিকিৎসার জন্য একজন স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ, একজন এনাস্থেসিস্ট ও একজন সার্জেনকে নিয়ে মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়। কিছু পরেই এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন ওই মহিলা।

হাসপাতালের তরফ থেকে জানানো হয়, ওই মহিলার বিদেশ যাত্রার ইতিহাস নেই। কোনও করোনা পজিটিভ রোগীর সংস্পর্শেও আসেননি। যদিও তাকে আগামী কয়েকদিন আইসোলেশন ওয়ার্ডেই রাখা হবে। তবে ডাক্তারদের বিশ্বাস ওই মহিলার করোনা হয়নি।

এছাড়া মহিলাকে স্তন্যপান করানোর অনুমতিও দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সেই সময় মহিলাকে মাস্ক পোড়ানো ও হাত পরিষ্কার করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এছাড়া মহিলা ও শিশুর আশেপাশে কাউকে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। ডাক্তাররা জানিয়েছেন, ওই নবজাতকের আপাতত করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে নেই কারণ মায়ের মাধ্যমে শিশুর দেহে করোনা সংক্রমণের কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here