international news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: উহান – কয়েকমাস আগেও পৃথিবীর সিংহভাগ মানুষই নামটার সঙ্গে পরিচিত ছিলেন না। কিন্তু নতুন দশক পড়তেই বদলাতে শুরু করে চিত্রটা। গত বছর শেষের দিকেই বেশ কিছু মানুষ নয়া একটা রোগে আক্রান্ত হলেও সারা বিশ্ব নোভেল করোনা ভাইরাসের সঙ্গে পরিচিত হয় নতুন বছরেই। আর বর্তমানে বিশ্বজনীন মহামারীর আকার নেওয়া এই করোনা ভাইরাসের আঁতুরঘর চিনের উহান শহর।

কয়েকমাস আগেও কম মৃত্যু মিছিল দেখেনি উহান। কিন্তু চিনা প্রশাসন কড়া হাতে লক ডাউন প্রণয়ন করায় সুফল পেয়েছেন প্রদেশের মানুষরা। আগামী বুধবার থেকে সরকারি ভাবে উহানে উঠে যাচ্ছে লক ডাউন। অর্থাৎ আবার প্রাণ ফিরে পাবে শহর। চলবে বাস, গাড়ি, ট্রেন। মানুষও ঘর থেকে বেরোবেন। তবে কিছু বিধিনিষেধ মেনেই। অল্প সংখ্যায়, মাস্ক পরে।

ইতিমধ্যেই চিনের কারখানাগুলি ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করেছে। মলগুলোকেও খোলা রাখবার অনুমতি দিয়েছে সরকার। যদিও মানুষজন এখনও ঘর থেকে সেইভাবে বেরোচ্ছেন না। তবে একদা চিনের অন্যতম অর্থনৈতিক প্রাণকেন্দ্র ছিল উহান। কিন্তু করোনা গভীর ক্ষত সৃষ্টি করেছে সেখানেও। যদিও বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, তাদের প্রথম লক্ষ্য প্রাণে বাঁচা। তারপর অর্থনীতিকে চাঙ্গা করা।

গত শনিবার এই হুবেই প্রদেশে করোনার ফলে প্রাণ হারিয়েছেন তিনজন। ফলে সেদিন পর্যন্ত চিনে মৃতের সংখ্যা ছিল ৩,৩২৯। অন্যদিকে, বর্তমানে গোটা চিনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮১,৭০৮। এর মধ্যে ৭৭,০৭৮ জন করোনাকে হারিয়ে সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন। করোনার দুঃস্বপ্নকে জয় করে যেমন ছন্দে ফিরছে উহান, তেমন গোটা পৃথিবীও সুস্থ্য হোক তাড়াতাড়ি, এটাই প্রার্থনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here