xing-modi kolkata bengalin news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভারতের সঙ্গে চিনের কূটনৈতিক শীতল সম্পর্কের বরফ কী গলবে? এর উত্তর আগামী ৪৮ ঘন্টার মদ্যেই পাওয়া যাবে৷ আগামীকাল বৃহস্পতিবার চেন্নাইয়ে পা আরখছেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং৷ ১১-১২ অক্টোবর চেন্নাইয়ে দ্বিতীয় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদীর মুখোমুখি হবেন তিনি৷ তার আগে বুধবার চিনে গিয়ে শির সঙ্গে দেখা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের আগে অত্যন্ত সাবধানী চিনের রাষ্ট্রনায়ক৷ এখনই কোনও বিতর্কে জড়াতে চান না তিনি৷ তাই ইমরানকে তিনি সাফ জানান, কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে চিন ভারতের পাশে থাকছে৷ তিনি এই বিষয়টি ভারতের সঙ্গে  দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করে মিটিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে৷

এর আগে ২০১৮ সালের এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী মোদী চিনের উইহানে গিয়ে শির সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন৷  ‘আসন্ন চেন্নাই আনুষ্ঠানিক সম্মেলনে দুই নেতার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক গুরুত্বের বিষয় নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার এবং ভারত-চিন ঘনিষ্ঠ উন্নয়ন অংশীদারিত্বকে আরও গভীর করার বিষয়ে মত বিনিময় করার একটি সুযোগ রয়েছে’ জানিয়েছে কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক। কাশ্মীর ইস্যুতে যে চিন আগাগোড়া পাকিস্তানকে সমর্থন জানিয়ে এসেছে৷ তবে ভারতে আসার আগে তার আচমকা ভোলবদলকে কূটনৈতিক মহল ভারতের জয় বলেই মনে করছে৷আরা তাই চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ভারত সফরের আগে,  কাশ্মীর ইস্যুটি নয়াদিল্লি ও ইসলামাবাদের মধ্যে কথা বলে সমাধান করা উচিত বলে জানান। এই কথা বললেও রাষ্ট্রসংঘ ও রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের দেওয়া প্রস্তাবের সাম্প্রতিক উল্লেখগুলি উল্লেখযোগ্যভাবে এড়িয়ে যায় ওই দেশ।

চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র গ্যাং শুয়াং বলেন যে কাশ্মীর ইস্যুতে চিনের অবস্থান এটাই যে, এ নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সমাধান হওয়া উচিত।তাঁর সাফ কথা, ইস্যুতে চিনের অবস্থান পরিষ্কার এবং ধারাবাহিক’।চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা ভারত ও পাকিস্তানকে কাশ্মীর ইস্যু সহ সকল ইস্যুতে বৈঠক ও পরামর্শে করার বিষয়ে এবং পারস্পরিক বিশ্বাসকে সুসংহত করার আহ্বান জানাচ্ছি। এটি উভয় দেশের স্বার্থ এবং বিশ্বের সাধারণ আকাঙ্ক্ষার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ।’  উল্লেখ্য ডোকলামে দু’দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে ৭৩ দিনের দীর্ঘ চাপানউতোর বন্ধ হওয়ার কয়েক মাস পরে, প্রধানমন্ত্রী মোদীএবং শি জিনপিংয়ের মধ্যে প্রথম অনানুষ্ঠানিক শীর্ষ সম্মেলনটি হয় ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে,চিনের হ্রদ শহর উহানে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here