kolkata news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এবারও না হলে ভারতীয় বিচারব্যবস্থার উপর থেকে হয়তো ভরসাটাই উঠে যেত আশাদেবীর। তবে হল না সেটা। এদিন সকালে তিহাড় জেলে চার ধর্ষকের ফাঁসি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আবেগে ভেসে গেলেন নির্ভয়ার মা। দেরী হয়েছে, কিছুটা সময় লেগেছে, তবে শেষ পর্যন্ত ন্যায় মেলায় এখন আশাদেবী বলছেন, মেয়ে এতদিনে ন্যায় পেল।

এর আগে তিনবার দিনক্ষণ ঠিক হওয়ার পরও পিছিয়ে গিয়েছিল নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসি। আইনের নানা প্যাঁচে জড়িয়ে, নানা জালে ফেলে যেভাবেই হোক ফাঁকি দিচ্ছিলেন আইনজীবী। তবে এবার আর হল না। এমনকি ফাঁসির দু ঘণ্টা বাকি থাকতে মধ্যরাতে সুপ্রিম কোর্টের দরজা ঠকঠক করেও হল না। ফাঁসি হয়েই গেল ধর্ষকদের। আর ফাঁসির পরই এদিন সংবাদ মাধ্যমের সামনে আসেন আশাদেবী। ভোর সাড়ে পাঁচটার সময় বাইরে এসে তিনি বলেন, কিছুটা দেরী হলেও শেষ পর্যন্ত ন্যায় পেয়েছি। সব শেষে ভারতীয় বিচারব্যবস্থাকেও ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি তিনি। তবে এই প্রক্রিয়াকে আইনের ফাঁক ফোকর চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে তাও জানান আশাদেবী।

তবে এই লড়াই কেবল তাঁর একার ছিল না। ছিল এই দেশের প্রত্যেকটা মানুষের যারা নির্ভয়ার জন্য একে অন্যের হাত ধরেছিল। তারা সকলেই কার্যত শান্তি পেয়েছে এদিন। সুপ্রিম কোর্টেও শেষ পিটিশন খারিজ হওয়ার পর ঘরে এসে নির্ভয়ার ছবিটা গলায় জড়িয়ে ধরেন আশাদেবী। বলেন, ‘তুই এতদিনে ন্যায় পেলি’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here