kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান: এক যুবতীকে গণধর্ষণ করার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো পূর্ব বর্ধমান জেলার সদর শহর বর্ধমানের কালীবাজার এলাকায়। ঘটনার জেরে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যাওয়ায় শহর জুড়ে বেশ ক্ষোভ ছড়িয়েছে। যদিও পরে পুলিশ অভিযোগ নিতে বাধ্য হয়। তবে ঘটনার জেরে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার না হওয়ায় এখনও বিষয়টি নিয়ে আমজনতার ক্ষোভ রয়ে গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, গত শুক্রবার ভোরে কালীবাজার এলাকায় গণধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার সময় নির্যাতিতা যুবতীর মা বাড়িতে ছিলেন না। সেই সময়েই ওই যুবতীকে বাড়িতে একা পেয়ে তাদের বাড়িতে চড়াও হয় এলাকারই ৫ যুবক। তারপর তাদের বাড়িতেই একটি ঘরে ওই যুবতীকে ঢুকিয়ে তার মুখে কাপড় গুঁজে তাকে একের পর এক ধর্ষণ করে ওই পাঁচ যুবক। নির্যাতিতার মা সকালে ফিরে মেয়েকে বিবস্ত্র ও রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে কান্নাকাটি জুড়ে দেন। তারপরই এলাকার মানুষ ঘটনাটির বিষয়ে জানতে পারেন। এদিকে এই ঘটনার জেরে পুলিশ অভিযোগ নিতে গড়িমাসি করায় ঘটনাটির সঙ্গে রাজনৈতিক রংও লাগতে শুরু করেছে।

ঘটনার জেরে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে, অভিযুক্তরা কালীবাজার এলাকায় এক প্রভাবশালী তৃণমূল নেতার ছত্রছায়ায় থাকায় পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিতে গড়িমসি করেছে। এ ব্যাপারে তারা ওই নির্যাতিতার পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যদিও গোটা ঘটনাটিকে মিথ্যা এবং চক্রান্ত করে ফাঁসানোর পাল্টা অভিযোগ করেছেন অভিযুক্তরা। নির্যাতিতা জানিয়েছেন, এই ঘটনায় তারা যাতে কোনও কেস করতে না পারেন সেজন্য তাদের প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে। অভিযোগ পুলিশ প্রথমে অভিযোগ নিতে গড়িমাসি করলেও পরে বর্ধমান মহিলা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে সক্ষম হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here