kolkata news
Highlights

  • ছুরি দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হল এক যুবককে
  • ঘটনাটি ঘটেছে আলিপুরদুয়ার শহরে
  • পুরনো শত্রুতার জেরে ওই যুবককে কুপিয়ে খুন করা হয়


নিজস্ব প্রতিনিধি, আলিপুরদুয়ার:
ছুরি দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হল এক যুবককে। ঘটনাটি ঘটেছে আলিপুরদুয়ার শহরে। নিহত যুবকের নাম মুন্না বাসফর। আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে কাজে নিযুক্ত ছিলেন তিনি। জানা গেছে, সোমবার গভীর রাতে আলিপুরদুয়ার শহর সংলগ্ন কালীবাড়ি এলাকায় সহকর্মীকে নিয়ে পানের দোকানে যান মুন্না। সেই সময় পুরনো বিবাদের জেরে এক ব্যক্তির সঙ্গে বচসা হয় মুন্নার। সেই সময় এক ব্যক্তি সদলবলে তাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। একের পর এক ছুরিকাঘাত করতে থাকে দু’জনের শরীরে। আশপাশের লোকজন পুলিশে খবর দেয়। আলিপুরদুয়ার থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আহত মুন্না ও যোগেন বাসফরকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু, চিকিৎসকরা মুন্নাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আহত যোগেন বর্তমানে গুরুতর আহত অবস্থায় আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

জানা গেছে, বেশ কয়েকদিন আগে মুন্নার ঘড়ির ভাঙার ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজু নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে বচসা হয়। সেই ঘটনার জেরেই সোমবার রাতে তার ওপর অতর্কিত হামলা করে ওই দুষ্কৃতীরা। সহকর্মীর হত্যার ঘটনা জানাজানি হতেই চাপা উত্তেজনা সৃষ্টি হয় সাফাই কর্মীদের মধ্যে। খুনে দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে পুলিশকে 24 ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দেন তারা। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দোষীরা গ্রেফতার না হলে কর্মবিরতির হুমকি দেন আলিপুরদুয়ার জেলার সাফাই কর্মীরা।

আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালের সাফাই কর্মী রাজেশ বাসফর জানান, এরকম দুঃসাহসিক ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি। প্রকাশ্যে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে মুন্নাকে। অবিলম্বে আমরা ওই দোষীদের আইন অনুযায়ী শাস্তি চাই। দোষীরা গ্রেফতার না হলে আমরা জেলার সাফাই কর্মীরা কর্মবিরতিতে যোগ দেব। ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমণ নিয়ে ত্রাহি ত্রাহি রব স্বাস্থ্য দফতরে। এর মাঝে সাফাই কর্মীদের কর্মবিরতির হুমকিতে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here